Mon. Mar 1st, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

দিনাজপুর সদর উপজেলার সুন্দরা মাঝাডাঙ্গা গ্রামে দশম শ্রেণির এক ছাত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। ধর্ষণের পর ধর্ষকরা ঘটনা জানালে প্রাণে মেরে ফেলারও হুমকি দিয়েছে।

ভিকটিম ওই ছাত্রী এখন দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এই ঘটনায় গেল ১৮ ডিসেম্বর কোতোয়ালি মামলা করেছেন ভিকটিমের মা।

ভিকটিমের মা জানান, গেল ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের দিন রাত সাড়ে ৯টার দিকে নিজ স্কুলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান থেকে বাড়ি ফেরার পথে তার মেয়ে আলতাফের দোকানের কাছে এলে জলকাপাড়া সুন্দরা গ্রামের লাল মোহম্মদের ছেলে মোকছেদুল ইসলামে টুকলুর নেতৃত্বে আরও অপরিচিত দুইজন স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে যায়।

পরে মঙ্গলাবাজারের পাঠানপাড়া পুকুর পাড়ে নিয়ে নিয়ে হাত-মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। যাওয়ার আগে ঘটনার কথা পরিবারকে জানালে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দেওয়া হয়।

ভিকটিম শিক্ষার্থীর দাবি যারা তার এই সর্বনাশ করেছে তাদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে সর্বোচ্চ শাস্তি দিতে হবে।

দিনাজপুর এম, আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. ফজলুর রহমান আরটিভি অনলাইনকে জানান, ভিকটিমের চিকিৎসা চলছে এবং ডাক্তারি পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে।

কোতয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) বজলুর রশিদ জানান, এ বিষয়ে মামলা হয়েছে এবং আসামিদের দ্রুত সময়ে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply