Thu. Mar 4th, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের বাসা থেকে অর্থ চুরি হওয়ার ১৯ দিন পরও উদ্ধার হয়নি সেই অর্থ। এখনো খোঁজ মেলেনি চোরের। স্ত্রী কাশমিরী কামালের আলমারির ড্রয়ার ভেঙে নগদ অর্থ চুরি করে পালানোর অভিযোগে এক গৃহকর্মীর বিরুদ্ধে গুলশান থানায় একটি মামলা হয়েছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অভিযুক্ত গৃহকর্মী সালমা বেগমকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

মঙ্গলবার দায়ের করা ওই মামলার এজাহারের ভাষ্য অনুযায়ী, মন্ত্রীর স্ত্রী কাশমিরী কামালের ড্রয়ার থেকে ৭০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়েছে গৃহকর্মী সালমা। গুলশান থানায় চুরির মামলা। ২০১৯ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর কাশমিরী কামালের গুলশান ২ নম্বরের ১০৩ নম্বর রোডের ১১ নম্বর বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে যোগ দেন সালমা বেগম (৪৫)। তিনি সর্বক্ষণ বাসায় থাকতেন। গত ১৩ ডিসেম্বর সকাল ১০টায় কাশমিরী কামালের বাসার আলমারির ড্রয়ার ভেঙে নগদ ৭০ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যান ওই গৃহকর্মী। পরে ওইদিন বেলা ১১টা নাগাদ গৃহকর্মী সালমা বেগমকে খুঁজে না পেয়ে তাকে ফোন করেন কাশমিরী কামাল। কিন্তু সালমা বেগমের ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

পরে গত ১৫ ডিসেম্বর ওই গৃহকর্মীর সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ হয় কাশমিরী কামালের। সে সময় চুরির কথা স্বীকার করে চুরি করা টাকা ফেরত দেয়া হবে বলে জানান সালমা বেগম। কিন্তু এরপর থেকে সালমা বেগম সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধ করে আত্মগোপনে চলে যান।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এই গৃহকর্মী সালমা বেগমের বাবার নাম শাহাদৎ হোসেন। তার গ্রামের বাড়ি দিনাজপুরের পার্বতীপুর থানা এলাকার আত্রাই গ্রামে। ২০১৯ সালের শুরুতে ঢাকায় আসেন সালমা। এরপর গুলশানের এক বাসায় কাজ নেন। সেখানে গত বছরের আগস্ট পর্যন্ত কাজ করেন তিনি। পরে কাশমিরী কামালের বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে যোগদান করেন।

এই মামলার বাদী লোটাস কামাল গ্রুপ অব কোম্পানির ম্যানেজার জাহাঙ্গীর হোসেন।

Leave a Reply