Thu. Feb 25th, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

অবশেষে পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ সিনেটে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিশংসনের বিচার শুরু হয়েছে। উভয়পক্ষের সাক্ষীদের মধ্যে তুমুল বাকবিতণ্ডা ও তর্ক-বিতর্কের মধ্যে দিয়ে শুরু হয়েছে প্রথম দিনের অভিশংসন বিচার।

মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) সংবাদসংস্থা এএফপি জানায়, ডেমোক্র্যাটরা প্রথম দিনেই বেশ ক্ষুদ্ধ ছিলেন। সিনেটে রিপাবলিকানদের সাক্ষী কিংবা তথ্য-প্রমাণাদি গ্রহণে ইচ্ছুক ছিলেন না। তারা মূলত ট্রাম্পের অভিশংসন বিচার এগিয়ে নিয়ে যেতে চাইছিলেন। দুইদিন ধরে চলমান এ বিচার প্রক্রিয়ায় ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকানরা তাদের তথ্য-প্রমাণাদি জমা দিতে ২৪ ঘণ্টা সময় পাবেন।

এদিকে সিনেটে বিচার শুরু হলেও এটা নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছেন না ট্রাম্প। সুইজারল্যান্ডের দাভোসে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের সম্মেলনে যোগ দিতে মঙ্গলবার ওয়াশিংটন ছাড়েন তিনি।

মার্কিন আইনসভার (কংগ্রেস) দুইটি কক্ষ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উচ্চকক্ষ ও নিম্ন কক্ষ। উচ্চ কক্ষের নাম সিনেট (সদস্য – ১০০)। নিম্ন কক্ষের নাম হাউজ অব রিপ্রেজেনটেটিভস, (সদস্য –৪৩৫)। গেল বছর নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনে কংগ্রেসের নিম্নকক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায় ডেমোক্র্যাটরা। অর্থাৎ ‘হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভস’র নিয়ন্ত্রণ এখন ডেমোক্র্যাটদের হাতে। তবে মার্কিন সিনেটের নিয়ন্ত্রণে আছে ট্রাম্প প্রশাসনের রিপাবলিকান দল।

এরই প্রেক্ষিতে ৩১ অক্টোবর প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন তদন্ত নিয়ে প্রস্তাব পাস হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদে অর্থাৎ নিম্নকক্ষে। যেখানে ২৩২ সদস্য ট্রাম্পকে ইমপিচ করার পক্ষে এবং ১৯৬ সদস্য বিপক্ষে ভোট দেন। এতে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ইমপিচের শুনানি ও তদন্তের পরবর্তী ধাপে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত হলো। কংগ্রেসে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে করা ইমপিচমেন্টের তদন্তের দেখভাল করছেন মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদে স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি।

Leave a Reply