Sun. Feb 28th, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:  উত্তর কোরিয়ায় করোনাভাইরাসে আকান্ত এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। দেশটির সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উনের নির্দেশেই ওই ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়েছে। এটাই দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের প্রথম ঘটনা। সিক্রেট বেইজিংয়ের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এক রোগীকে গুলি করা হত্যা করা হয়েছে। তবে ওই রোগী সম্পর্কে কোনো তথ্য জানাতে পারেনি তারা। ওই ব্যক্তির শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে।

এর আগে দক্ষিণ কোরিয়ার গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়েছিল যে, কোয়ারেন্টাইনে থাকা এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। ওই ব্যক্তি গণ-শৌচাগার ব্যবহার করায় করোনা বিস্তারের ঝুঁকি বিবেচনা করে তার এই সর্বোচ্চ শাস্তি কার্যকর করেছিল প্রশাসন।

সিঙ্গাপুরের ওই সংস্থাটি ছাড়াও দক্ষিণ কোরিয়ার একটি মিডিয়া রিপোর্টে করোনা-রোগীকে হত্যার দাবি করা হয়েছে। তারা জানিয়েছে, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি সূত্র থেকে তারা জানতে পেরেছে, করোনাভাইরাস সংক্রমণ সন্দেহে এক ব্যবসায়ীকে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছিল। কিন্তু তিনি নিয়ম মানেননি। তখন ওই ব্যবসায়ীকে গুলি করে মারা হয়। 

গত সপ্তাহের প্রথম দিকে এক প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ওই ব্যক্তি পাবলিক গোসলখানায় গিয়েছিলেন। এতে অন্যরা সংক্রমণের ঝুঁকিতে পড়ে যান। ফলে ঝুঁকি মোকাবেলায় তাকে গুলি করে মারা হয়।  

উত্তর কোরিয়ায় এক করোনাভাইরাসকে গুলি করে হত্যার যে খবর ছড়িয়েছে তা নিশ্চিত করা যায়নি। খবরটি ‘ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমস’ এর সিঙ্গাপুর সংস্করণে প্রকাশ করা হয়েছে। এ খবর করা হয়েছে ‘@সিক্রেট_বেইজিং’ নামের টুইটার অ্যাকাউন্টের টুইট থেকে। তবে এ তথ্যের সত্যতা যাচাই করা সম্ভব হয়নি। 

Leave a Reply