Fri. Feb 26th, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিউজ ডেস্ক : গেল বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বজুড়ে। এখন পর্যন্ত বিশ্বের ১৮০ টির বেশি দেশে হানা দিয়েছে করোনা। বিশ্বব্যাপী এখন পর্যন্ত ১৪ হাজার ৬৫৪ জনের প্রাণ কে’ড়ে নিয়েছে করোনা। এছাড়াও এ ভাইরাসে আ’ক্রা’ন্তের সংখ্যা মোট ৩ লাখ ৩৭ হাজার ৫৫৩। 

তবে করোনাভাইরাস হঠাৎ করেই ভ’য়ানক হয়ে ওঠে না। আ’ক্রা’ন্তের প্রথমদিন থেকে লক্ষণ প্রকাশ পেয়ে ছয়-সাত দিন লাগে মা’রাত্ম’ক রূপ নিতে। তবে শরীরে অন্য কোনো জটিলতা না থাকলে ছয়-সাত দিন এমনিতেই সেরে যায় রোগটি।

করোনার লক্ষণগুলো নিয়ে বিশেষজ্ঞদের মতামত, কোভিড-১৯ আ’ক্রা’ন্ত হলে প্রথম দিন থেকে তৃতীয় দিন উপসর্গ হালকা জ্বর, তাপমাত্রা ১০০ থেকে ১০২। চতুর্থ দিনে এসে বাড়বে জ্বরের মাত্রা, বাড়তে থাকবে গলা ব্যথা। মাথাব্যথা, ক্ষু’ধা কমে যাওয়ার পাশাপাশি দেখা দেবে ডায়রিয়া।

পঞ্চম দিনে শরীরে দেখা দিবে অবসাদ, শুকনো কাশি আর মাংশপেশিতে ব্যথা শুরু হবে। এর পরদিনে জ্বর থাকবে ১০০ ডিগ্রির মতো, পাশাপাশি শ্বাসকষ্ট, শুকনো কাশি, ডায়রিয়া বা বমি। সপ্তম দিনে এসব উপসর্গ আরও তীব্র হয়। অষ্টম ও নবম দিনে জ্বরের ও শ্বাসকষ্ট আর তী’ব্র হয়ে নিউমোনিয়ায় রূপ নেবে।

তবে অধিকাংশের ক্ষেত্রে তা পাঁচ কিংবা ছয় দিনের মাথাই রোগী সুস্থ হয়ে ওঠে। শরীরে ডায়াবেটিস, হৃদরোগ কিংবা কিডনিজনিত সমস্যা থাকলেই কেবল মারাত্ম’ক দিকে যায় রোগটি।

গণমাধ্যমকে মেডিসিন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক রিদওয়ানুর রহমান বলেন, বেশিরভাগ রোগী চিকিৎসা ছাড়াই ভালো হয়ে যায়। যাদের আইসিইউ লাগবে তাদেরকেই সাপোর্ট দিতে হয়। যাদের হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়, তাদেরও তেমন একটা ওষুধ লাগে না। সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন

Leave a Reply