Sun. Feb 28th, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

করোনা আতংকে বেকার দিনমজুর ও শ্রমিকদের জন্য জীবন-যাপন স্বাভাবিক রাখাার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দেশের সকল উপজেলায় চাল ,আলু ও ডাল বরাদ্দ হয়েছে।

স্বজনপ্রীতি না করে ইউনিয়ন ও পৌর এলাকার ওয়ার্ড ভিত্তিক তালিকা জনসম্মুখে টাঙ্গিয়ে দেয়ার অনুরোধ করেছেন সাধারণ মানুষ।

অতি দরিদ্র/দিনমজুর /কর্মহীন বেকার /অস্বচ্ছল ব্যক্তি, যারা করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ / সংকটকালীন সময়ে বেকার হয়ে পড়ছেন তাদের জন্য সরকার কর্তৃক ইতিমধ্যে জি আর চাল ও জি আর নগদ অর্থ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।
ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান/ পৌরসভার মেয়র এর মাধ্যমে এটি বিতরণ কার্যক্রম শুরু হবে।
পরিবার প্রতি ১০ কেজি চাল, ৫ কেজি আলু ও ২ কেজি ডাল প্যাকেট করে দেয়া হবে। উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের সহযোগিতায় বিতরণ করবেন।

  • প্রতিটি ইউনিয়নে যেসব লোকজন কাজ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় না খেয়ে আছে (দিনমজুর) ইউপি চেয়ারম্যানগণ তাদের তালিকা করবেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার তা যাচাই করবেন।
  • খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি এবং ভিজিডির আওতার বাইরের পরিবার অগ্রাধিকার পাবেন।
  • চাহিদা ভিত্তিতে আসছে শনিবার ২৮ মার্চ নীলফামারীর
    চার পৌরসভা ৬ উপজেলার ৬০ ইউনিয়নে শুরু করতে হবে বিতরন।
  • কোন মাঠে উপকারভোগীদের কমপক্ষে এক মিটার দূরত্বে বসিয়ে তাদের হাতে ১০ কেজি চাল, ৫ কেজি আলু ও ২ কেজি ডাল পৌছে দেয়া নিশ্চিত করতে হবে। কোনভাবেই লাইনে দাড় করানো যাবে না। তবে বাসায় পৌঁছে দিতে পারলে বেশি ভাল।
  • উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণ বিষয়টি সমন্বয় করবেন।

সাধারণ মানুষ অনুরোধ জানিয়েছেন, আত্নীয়স্বজন দের নামে জনপ্রতিনিধিরা তালিকা করবেন না,
আত্নসাৎ করার চেস্টা করবেন না।
প্রকৃত দিনমজুর, নারী পুরুষ শ্রমিকদের নামের তালিকা করবেন।

করোনা আতংকে বেকার
দিনমজুর ও শ্রমিক।

Leave a Reply