Mon. Mar 1st, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোঃ রুহুল আমিন ডিমলা নীলফামারী প্রতিনিধি:

করোনাভাইরাস যুদ্ধে ঘরে থাকার নির্দেশনা মানছেন না অনেকেই। যথাযথভাবে মানা হচ্ছে না সামাজিক দূরত্বও। নিয়ম ভেঙে ডিমলার কয়েকটি গ্রামে একে অপরের গা ঘেঁষে ফুটবল ক্রিকেট খেলতেছে।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নজরদারি এড়িয়ে বিনা প্রয়োজনেও ঘর থেকে রাস্তায় বের হচ্ছেন কেউ কেউ। অলিগলিতে জটলা পাকিয়ে গল্প-আড্ডায় সময় কাটিয়েছেন অনেকে। জরুরি কাজে নিয়োজিত পরিবহনের বাইরে ব্যক্তিগত কিছু গাড়িও রাস্তায় দেখা গেছে।

শুক্রবার (১৭-এপ্রিল) ডিমলার বেশ কিছু গ্রামে ঘুরে ও খোঁজ নিয়ে এমন চিত্র দেখা গেছে। গ্রাম গুলো ডিমলা বটতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে ও রামডাংগা ডাক্তার পাড়ার দক্ষিনে জালিয়া পাড়ার উত্তরে, মৎস্য লীগ’র সাধারণ সম্পাদক অভিলাসের বাড়ির উত্তরে।

সরেজমিন ডিমলা বটতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ সাংবাদিক রুহুল আমিন’র বাড়ি থেকে হাঁফ কি মি দক্ষিণে এবং রামডাঙ্গা মৎস্য লীগ সাধারণ সম্পাদক অভিলাসের বাড়ির উত্তরে দেখা যায়, মাঠ গুলোতে ক্রিকেট ও ফুটবল খেলার জনসমাগোম। স্থানীয় সচেতন নাগরিকদের সাথে কথা বলে জানা যায় প্রতিদিন বাঁধা করা পিঠানি দেওয়া সত্ত্বেও তারা মানছে না কারো কথা।

ডিমলায় বিভিন্ন গ্রামে দেখা গেছে, অলিগলিতে বিভিন্ন বয়সী মানুষের আড্ডা। বিশেষ করে গ্রামের ছোট ছোট দোকান স্টলগুলোতে তরুণ ও কিশোরদের আড্ডা দেখে মনে হয়েছে তাদের মধ্যে করোনাভাইরাসের কোনো ভয় বা আতঙ্ক নেই।নিয়মরক্ষায় অনেকে মাস্ক পরলেও সঠিকভাবে সামাজিক দূরত্ব বলতে কিছুই মানছে না তারা।

এ বিষয়ে ডিমলা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের সচেতন মানুষেরা বলেন,
সর্বোচ্চ সহনশীলতার পরিচয় দিয়ে জনগণকে সচেতন করার চেষ্টা চলছে। এমন পরিস্থিতিতে অনিয়ন্ত্রিত চলাফেরা বন্ধ না করা গেলে এর ফল খুবই খারাপ হবে ।

এ সময়ে আমরা যদি এটা (ঘরে থাকা ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা) না মানতে পারি তাহলে আমাদেরও কিন্তু একটা ভয়ানক পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হবে। সুতরাং এটা মানানোর জন্য সরকারের যা যা করা দরকার সবকিছুই করতে হবে।

এখন কিন্তু স্বাভাবিক পরিস্থিতি নেই, একটা অস্বাভাবিক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। মানুষের জীবন বাঁচানোর জন্য সরকারকে প্রয়োজন অনুযায়ী যে কোনো ধরনের কঠিন পদক্ষেপ নিতে হবে, এবং এই সব গ্রামে প্রসাশনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি আমরা।

Leave a Reply