Tue. Mar 9th, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোঃ সরোয়ার জাহান সোহাগ, চীফ রিপোর্টার:

চলমান করোনা সংকটে মধ্যবিত্তরা সবচেয়ে কষ্টে আছে। তারা বলেন, আমাদের বড় সম্পদ আত্মসম্মান। আমরা ত্রাণের জন্য না পারছি লাইনে দাঁড়াতে, পারছি না কারও কাছে হাত পাততে। আমাদের বুকের ভেতর এক অজানা অনিশ্চিত।

যারা দৈনিক আয়ের উপর নির্ভরশীল ছিলো, তারাই সবচেয়ে বেশী বিপদে। এ রকমই একটি পরিবারের কর্তার সাথে কথা হলে তিনি জানান, বাববুরহাট বাজারে তার একটি কম্পিউটার দোকান রয়েছে, সেখানে প্রতিদিন যা আয় হতো তা দিয়ে পাঁচ সদস্যের সংসার খুব ভালো ভাবেই চলতো। এমনকি গ্রামের বাড়ীতে ও তিনি বাবা- মায়ের জন্য মাসে মাসে টাকা পাঠাতে পারতেন। কিন্তু দেশের এই পরিস্থিতিতে গ্রামের বাড়ীতে টাকা পাঠানোতো দুরের কথা নিজেদেরই এখন না খেয়ে থাকার উপক্রম হয়েছে। তিনি আরো বলেন, কিছু টাকা জমানো ছিলো তাও শেষ হবার পথে, অপরদিকে শুরু হয়েছে রমজান মাস।

অপর এক ব্যক্তি বেশ আক্ষেপ নিয়ে বলেন, বড়লোকের টাকা আছে, গরীবরা ত্রাণ পাচ্ছে আর মধ্যবিত্তরা অর্ধাহারে দিন কাটাচ্ছে।

বিশিষ্টজনেরা বলছেন, খাদ্য সহায়তার জন্য তারা লাইনেও দাঁড়াতে পারছে না। তাদের নগদ অর্থ দিয়ে আধুনিক রেশনিংয়ের ব্যবস্থা করলে প্রত্যেককে কার্ড দিয়ে অনলাইনে টাকা পরিশোধ করবে। খাদ্যপণ্য তাদের বাসায় পৌঁছে যাবে। এর জন্য দরকার নীতিমালা প্রণয়নের।

Leave a Reply