Sun. Mar 7th, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের দক্ষিণাঞ্চলের রাজ্য কেরালাতে একটি গর্ভবতী হাতিকে হত্যার অভিযোগে তিন জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এমনটি জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম মুম্বাই মিরর। এ অমানবিক ঘটনায় পুরো বিশ্বজুড়ে সমালোচনার ঝড় চলছে।

জানা গেছে, জঙ্গল থেকে বেরিয়ে খাবারের সন্ধানেই কাছের গ্রামে গিয়েছিল গর্ভবতী হাতিটি । সেখানেই তাকে বাজি ভর্তি আনারস খেতে দেওয়া হয়। এরপরই হঠাৎ তার মুখে বিস্ফোরণ হয়। ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় মুখ ও জিভ। অসহ্য যন্ত্রণা এবং খিদে নিয়ে সারা গ্রাম হেঁটে বেড়ায় সে। এই অবস্থায় হাতিটি পানি খুঁজছিল। যদি কিছু সুরাহা হয়। নিজের চেষ্টাতেই খুঁজতে-খুঁজতে হাতিটি পৌঁছে যায় ভেলিয়ার নদী পর্যন্ত। পানির খোঁজ পেয়েই সে চুপচাপ দাঁড়িয়ে পড়ে নদীর মাঝে। আর সেই দাঁড়িয়ে থেকেই মৃত্যু হয় তার।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, হাতিটি নদীর জলে শুঁড় এবং মুখ ডুবিয়ে দাঁড়িয়েছিল অনেকক্ষণ। যদি মুখ ফেটে যাওয়ার অসহনীয় যন্ত্রণা থেকে কিছুটা মুক্তি মেলে, যদি পেটের বাচ্চাটা বাঁচে। তবে শেষ পর্যন্ত সেখানেই মারা যায় গর্ভবতী হাতিটি ।

এ বিষয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় পরিবেশমন্ত্রী প্রকাশ জাভাডেকর একটি টুইট বার্তায় জানান , বিস্ফোরক ভর্তি আনারস খাওয়ার ঘটনাটি কেরালার মল্লাপুরামে ঘটেছিল, কিন্তু পালক্কড় জেলায় গিয়ে শেষপর্যন্ত হাতিটি মারা যায়। ঘটনাটি ঘটে ২৭ মে।

Leave a Reply