Mon. Mar 1st, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মঙ্গলবার রাজধানীর ওয়ারী এলাকার কিছু অংশ ৪ জুলাই থেকে ২৫ জুলাই পর্যন্ত মোট ২১ দিন পর্যন্ত লকডাউন থাকার কথা জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। দুপুরে নগর ভবনে লকডাউন বাস্তবায়নে কেন্দ্রীয় ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরি বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান তিনি।

তিনি জানান, ঢাকা দক্ষিণ সিটির ৪১ নং ওয়ার্ডের টিপু সুলতান রোড, ওয়্যার রোড, নওয়াব রোড, লালমিনি, র‍্যাংকিং স্ট্রিট, হরে রোড, জয়কালী মন্দির থেকে বলধা গার্ডেন পর্যন্ত সড়ক রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত করে লকডাউনের আওতায় আনা হবে। ৪ জুলাই ভোর ৬ টা থেকে নির্দেশনা বাস্তবায়ন শুরু হবে। লকডাউন চলাকালে এসকল এলাকায় ওষুধের দোকান ছাড়া বন্ধ থাকবে সবকিছু।

মেয়র বলেন, যাতায়াত সুবিধার জন্য ওয়ারী এলাকার দুটি পথ খোলা থাকবে। বাকি পথগুলো বন্ধ করে দেওয়া হবে। সেখানে একটি নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খোলা হবে। নমুনা সংগ্রহ করার জন্য বুথ থাকবে এবং সিটি করপোরেশনের মহানগর জেনারেল হাসপাতালে আক্রান্তদের জন্য আইসোলেশন কেন্দ্র স্থাপন করা হবে।

এর আগে, গতকাল সোমবার এই রেড জোনে লকডাউন বাস্তবায়নের জন্য ডিএসসিসিকে চিঠি দেয় স্থানীয় সরকার বিভাগ। তারও আগে স্থানীয় সরকার বিভাগকে চিঠি দেয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

এদিকে, পরীক্ষামূলকভাবে চলা পূর্ব রাজাবাজারে ২১ দিনের লকডাউন আজ মঙ্গলবার রাতে শেষ হচ্ছে। এরপর এলাকাটিতে নিয়ন্ত্রণ বজায় রেখা চলা হবে। কোনো বাড়িতে যদি করোনা রোগী থাকে তাহলে কেবল সেই বাড়িটি আরও কিছুদিন লকডাউন করা হতে পারে।

রাজধানীর পূর্ব রাজাবাজারে লকডাউনের পর এবার ‘রেডজোন’ হিসেবে চিহ্নিত ওয়ারী এলাকার ভেতরে-বাইরের আটটি রোড আগামী ৪ জুলাই (শনিবার) লকডাউন হচ্ছে। এদিকে, রাজধানীর পূর্ব রাজাবাজারের লকডাউন আজ মঙ্গলবার রাতে শেষ হচ্ছে।

মঙ্গলবার রাজধানীর ওয়ারী এলাকার কিছু অংশ ৪ জুলাই থেকে ২৫ জুলাই পর্যন্ত মোট ২১ দিন পর্যন্ত লকডাউন থাকার কথা জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। দুপুরে নগর ভবনে লকডাউন বাস্তবায়নে কেন্দ্রীয় ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরি বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান তিনি।

তিনি জানান, ঢাকা দক্ষিণ সিটির ৪১ নং ওয়ার্ডের টিপু সুলতান রোড, ওয়্যার রোড, নওয়াব রোড, লালমিনি, র‍্যাংকিং স্ট্রিট, হরে রোড, জয়কালী মন্দির থেকে বলধা গার্ডেন পর্যন্ত সড়ক রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত করে লকডাউনের আওতায় আনা হবে। ৪ জুলাই ভোর ৬ টা থেকে নির্দেশনা বাস্তবায়ন শুরু হবে। লকডাউন চলাকালে এসকল এলাকায় ওষুধের দোকান ছাড়া বন্ধ থাকবে সবকিছু।

মেয়র বলেন, যাতায়াত সুবিধার জন্য ওয়ারী এলাকার দুটি পথ খোলা থাকবে। বাকি পথগুলো বন্ধ করে দেওয়া হবে। সেখানে একটি নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খোলা হবে। নমুনা সংগ্রহ করার জন্য বুথ থাকবে এবং সিটি করপোরেশনের মহানগর জেনারেল হাসপাতালে আক্রান্তদের জন্য আইসোলেশন কেন্দ্র স্থাপন করা হবে।

এর আগে, গতকাল সোমবার এই রেড জোনে লকডাউন বাস্তবায়নের জন্য ডিএসসিসিকে চিঠি দেয় স্থানীয় সরকার বিভাগ। তারও আগে স্থানীয় সরকার বিভাগকে চিঠি দেয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

এদিকে, পরীক্ষামূলকভাবে চলা পূর্ব রাজাবাজারে ২১ দিনের লকডাউন আজ মঙ্গলবার রাতে শেষ হচ্ছে। এরপর এলাকাটিতে নিয়ন্ত্রণ বজায় রেখা চলা হবে। কোনো বাড়িতে যদি করোনা রোগী থাকে তাহলে কেবল সেই বাড়িটি আরও কিছুদিন লকডাউন করা হতে পারে।

Leave a Reply