Fri. Apr 23rd, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

রক্ষকই যখন ভক্ষক! ধ’র্ষণে অ’ভিযু’ক্তকে বাঁ’চাতে ৩৩ লাখ টাকা ঘুষ নিয়েছিলেন। নিজের জালে জড়িয়ে ধ’রা পড়েই এখন গ্রে’প্তারের মুখে সেই নারী পু’লিশ কর্মক’র্তা।জোড়া ধ’র্ষণ মা’মলায় অ’ভিযু’ক্তকে বাঁ’চাতে মোটা অঙ্কের ঘুষ নিয়ে ঘটনা ধামা চাপা দেওয়ার চেষ্টায় ছিলেন। এমনই অ’ভিযোগ উঠেছে ভা’রতের আহমেদাবাদের এক থা’নার নারী পু’লিশ কর্মক’র্তার বি’রুদ্ধে।

সূত্রের খবর, গ্যাপ কর্প সায়েন্স নামে একটি বেসরকারি সংস্থার ম্যানেজিং ডিরেক্টর কেনাল শাহের বি’রুদ্ধে সম্প্রতি তাঁরই সংস্থার দুই নারী কর্মী থা’নায় ধ’র্ষণের অ’ভিযোগ দায়ের করেন। অন্যদিকে, ঘটনার অন্যতম প্রত্যক্ষদর্শী যিনি সংশ্লিষ্ট সংস্থার সিকিউরিটি অফিসার, তাঁকেও কেনাল শাহ হু’মকি দিয়েছিলেন বলে, তাঁর বি’রুদ্ধে আলাদা একটি অ’ভিযোগ দায়ের হয়।

ওই দু’টি ধ’র্ষণের অ’ভিযোগের মধ্যেই একটির ত’দন্তের দায়িত্বভা’র গিয়ে বর্তায় সাব-ইনপ্সেক্টর তথা থা’নার ইনচার্জ শ্বেতা জাদেজার উপর। সেই সুবাদেই অ’ভিযু’ক্তের কাছে টাকা চেয়ে বসেন তিনি।শ্বেতার বি’রুদ্ধে অ’ভিযোগ, ধ’র্ষণ ও হু’মকির দায়ে অ’ভিযু’ক্ত কেনালকে তিনি গ্রে’প্তার না করতে ৩৩ লাখ টাকা ঘুষ চান। শুধু তাই নয়, দাবি মতো টাকা না দিতে পারলে জোড়া ধ’র্ষণের অ’ভিযোগে তাঁকে সত্ত্বর গ্রে’প্তারের হু’মকিও দেন। শ্বেতার বি’রুদ্ধে ক্রা’ইম ব্রাঞ্চে দাখিল করা এফআইআরে এমনই অ’ভিযোগ আনা হয়েছে।

মাত্র চার বছর আগে পু’লিশে যোগ দেন শ্বেতা জাদেজা। জানা গেছে, অ’ভিযু’ক্ত কেনাল শাহের দাদা ভবেশ শাহকে তিনি থা’নায় ডেকে পাঠিয়েই ঘুষের প্রস্তাব রাখেন। কথামতো কেনাল শাহর দাদা ওই টাকা শ্বেতার বলে দেওয়া ব্যক্তির অ্যাকাউন্টেও পাঠিয়ে দেন।

এরপর আরেকটি মা’মলার প্রসঙ্গ তুলে টাকা চাওয়া হলে, অ’ভিযু’ক্তের দাদা উচ্চতর কর্তৃপক্ষের কাছে শ্বেতার বি’রুদ্ধে অ’ভিযোগ জানান।এরপরই ওই নারী পু’লিশ কর্মক’র্তার বি’রুদ্ধে ত’দন্তে নেমে ক্রা’ইম ব্রাঞ্চ প্রমাণ জোগাড় করে। সূত্রের খবর, উপর মহল থেকে নির্দেশ এলেই যে কোনও সময়ে গ্রে’প্তার করা হতে পারে শ্বেতা জাদেজাকে। খবর: সংবাদ প্রতিদিন।

Leave a Reply