Sun. Apr 11th, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

জাহাঙ্গীর রেজা, স্টাফ রিপোর্টার: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহ-ধর্মিণী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে নীলফামারীর ডিমলায় ৬ জন দুস্থ নারীর মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়েছে।

“বঙ্গমাতা ত্যাগ ও সুন্দরের সাহসী প্রতীক” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে শনিবার (৮-আগষ্ট) সকালে উপজেলা পরিষদ হলরুমে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ৬জন দুস্থ নারীর হাতে সেলাই মেশিন তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা তবিবুল ইসলাম।

উপজেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের যৌথ আয়োজনে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বিশেষ অতিথি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক সরকার মিন্টু বক্তব্যে এসময় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গমাতার আত্মজীবনী ও ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাতে তিনি জাতির জনকের হত্যাকারীদের হাতে নির্মমভাবে হত্যার কথা তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়শ্রী রানী রায়ের সভাপতিত্বে ও কিশোর-কিশোরী ক্লাবের সংগীত শিল্পি আব্দুস সালামের সঞ্চালনায় উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের প্রশিক্ষক আয়শা সিদ্দিকা স্বাগত বক্তব্য রাখেন। আরো বক্তব্য রাখেন, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গুলশানআরা বেগম। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মহিলা বিষয়ক অফিস কার্যালয়ের হিসাব রক্ষক কাম সুপার ভাইজার আব্দুল মজিদ, অফিস সহকারী বাবু সন্তোষ কুমার রায় প্রমুখ। আলোচনা শেষে ডিমলা উপজেলার ৬জন দুস্থ নারীদের মাঝে সেলাই মেলিন প্রদান করা হয়। এরা হলেন পূর্নিমা রানী রায়, শ্রী মতি স্বপ্না রানী রায়, উমা রানী রায়, মোছা: আছমা বেগম, মোছা: মিসু আক্তার মোস্তাজির ও মোছ: সাজেদা আক্তার।

উক্ত ৬ জন অসহায় হতদরিদ্র দুস্থ নারীর মাঝে সেলাই মেশিন বিতরনের পূর্বে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়শ্রী রানী রায় বলেন, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বাঙালির অহংকার, নারী সমাজের প্রেরণার উৎস। তিনি কেবল জাতির পিতার সহ-ধর্মিণীই ছিলেন না, বাঙালির মুক্তিসংগ্রামেও তিনি ছিলেন অন্যতম অগ্রদূত, মহষী নারী।

সেলাই মেশিন বিতরণ শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা সহ সকল শহীদদের আত্মার শান্তি কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

Leave a Reply