Fri. Apr 23rd, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে একই বাড়ির মাদ্রাসা ও স্কুলের দুই শিক্ষার্থী নিখোঁজ হওয়ার পর ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। থানায় জিডির পর স্থানীয় তিন পুরুষ ও নারী তাদের উদ্ধার করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে। বর্তমানে তারা চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

গত রবিবার (১৬ আগস্ট) ফরিদগঞ্জ পৌর এলাকার ভাটিয়ালপুর মিজি বাড়ি থেকে ওই দুই শিক্ষার্থী নিখোঁজ হয়।

খোঁজ নিয়ে, হাসপাতাল সূত্রে ও পরিবারের লোকদের সাথে আলাপ করে জানা গেছে, ভাটিয়ালপুর মিজি বাড়ি থেকে ১২ বছরের মাদ্রাসা শিক্ষার্থী ও ১৪ বছরের স্কুল শিক্ষার্থী নিখোঁজ হয়। এর মধ্যে এক শিক্ষার্থীর মা সোমবার (১৭ আগস্ট) ফরিদগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। এরপর পুলিশ তাদের উদ্ধার করতে চেষ্টা চালায়। এরই মধ্যে ওই এলাকার টিটু নামক এক ছেলেকে ঘটনায় জড়িত বলে সন্দেহ হয়। বিষয়টি এলাকায় ব্যাপক আলোচনা হলে ঘটনার সাথে জড়িত ব্যক্তিদের মধ্যে বাশার মিজি, রুবি বেগম ও আনু বেগম নামে তিনজন ওই দুই শিক্ষার্থীকে মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় উদ্ধার করে এনে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে। এ সময় উদ্ধারকারী ওই তিন নারী ও পুরুষকে আটক করা হয়।

উদ্ধার হওয়ার পরে ওই দুই শিক্ষার্থীর অভিভাবক বিষয়টি ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশকে অবহিত করেন। পুলিশ দুই শিশুসহ অভিভাবকদের থানায় যাওয়ার কথা বললেও তারা থানায় না গিয়ে রাতে সরাসরি চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে এনে গাইনি ওয়ার্ডে ভর্তি করান। বর্তমানে তারা চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডের পৃথক দুটি বেডে ভর্তি রয়েছে।

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. সুজা উদ্দৌলা রুবেল জানান, দুই শিশুর পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তাদের চিকিৎসা চলছে। ধর্ষণের শিকার হয়েছে কি না তা রিপোর্ট এলে বোঝা যাবে।

ফরিদগঞ্জ থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) শিকদার হাসিবুর রহমান হাসিব মুঠোফোনে বলেন, দুই শিক্ষার্থী নিখোঁজ হওয়ার পর সোমবার এক শিক্ষার্থীর মা থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। সে আলোকে এলাকায় গিয়ে জানতে পারি টিটু নামে ঢাকায় বসবাসরত এক ছেলের সাথে এক শিক্ষার্থী সম্পর্ক রয়েছে। সে হিসেবে এলাকায় বিভিন্ন লোকদের জিজ্ঞাসাবাদ করে করে উদ্ধারের চেষ্টা চালানো হয়। মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় এক যুবক মোবাইল ফোনে জানান দুই শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসছেন আনু, রুবি ও বাশার মিজি।

তিনি আরও জানান, ওই দুই শিক্ষার্থী গুরুতর অসুস্থ হওয়ার কারণে তাদেরকে থানায় না এনে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ধর্ষণের অভিযোগ এনে ভর্তি করেছেন। তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করা হলে থানায় মামলা নেয়া হবে।

Leave a Reply