Tue. Apr 13th, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

“দীর্ঘ ১৪ বছর পর রংপুরে আসলাম। যেদিন এরশাদ সাহেবের সঙ্গে এরিককে নিয়ে রংপুরের মাটিতে পা রাখি, রাস্তার দু’পাশে ফুলে ফুলে মানুষ আমাকে বরণ করে নিয়েছিলেন। অনেক শখ করে এরশাদ সাহেব আমাকে বিয়ে করেছিলেন। সুখের সংসার ছিল আমাদের এই সন্তানটিকে নিয়ে। কিন্তু সেটি সহ্য হয়নি অনেকের। কারণ এটি রাজনৈতিক পরিবার ছিল, আমরা প্রাসাদ রাজনীতির শিকার।”
সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রংপুরের পল্লী নিবাসে এরশাদের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা জানান।

বিদিশা সিদ্দিক বলেন, “সবসময় এরশাদ সাহেবকে একটি গ্রুপ ভুল বোঝানো ও আমাদের মধ্যে দূরত্ব তৈরিতে ব্যস্ত ছিল। তাদের জন্য আমরা সংসার করতে পারিনি। আজও সেই গ্রুপটি সক্রিয় আছে। তারা এরিকের ভালো চায় না।”

তিনি বলেন, এরশাদপুত্র এরিকের সব সম্পত্তি দখল হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে বিদিশা সিদ্দিক। এরশাদের সাবেক স্ত্রী বিদিশার দাবি, একটি গ্রুপ এখন এরিকের সম্পদ লুটপাট করার জন্য পাগল হয়েছে। এরিকের ট্রাস্টে কত সম্পদ আছে তা সবাই জানে। কিন্তু সেসবের কোনো কিছুই এখন এরিকের কাছে নেই, সব দখল হয়ে গেছে। সবাই দখলের জন্য ব্যস্ত। কেউ এই প্রতিবন্ধী বাচ্চার জন্য চিন্তা করে না।

রাজনীতিতে ফেরার আগ্রহ প্রকাশ করেন জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সাবেক স্ত্রী বিদিশা সিদ্দিক। এজন্য তিনি সারাদেশ সফরের কর্মসূচি নিয়েছেন বলেও জানান।

বিদিশা বলেন, “রাজনীতি করতে অনেক সাহসের প্রয়োজন। আমার হাতে পয়সা নেই, কিন্তু সাহস আছে। আমার সাহস আমার সন্তান। আমি আমার সন্তানের বাবার কাছে অনেক কিছু শিখেছি। মানুষের কাছে যাওয়া, কথা বলা শিখেছি। রংপুরের মানুষের ঘরে ঘরে আমাকে নিয়ে যেতেন তিনি (এরশাদ)। এই রংপুর থেকে রাজনীতি শিখেছি। আমি কিছুই ভুলি নাই।”

এর আগে বেলা আড়াইটার দিকে এরিক তার মা বিদিশা সিদ্দিককে সঙ্গে নিয়ে এরশাদের কবর জিয়ারত করে সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এসময় সাংবাদিকদের কাছে এরিক এরশাদ বলেন, “আমি আমার মাকে নিয়ে রংপুরে এসেছি বাবার কবর জিয়ারত করার জন্য। আমার অনেক আগেই আসার কথা ছিল, কিন্তু অনেক বাধার কারণে আসতে পারিনি। ফোন করে আমাকে হুমকি দেওয়া হয়েছিল, যেন আমি রংপুরে না আসি। এবার আমরা কৌশল করে এসেছি। আমার মাকে আব্বা অনেক ভালোবাসতেন, তাই বাবার কবর দেখাতে মাকে নিয়ে এসেছি।”

তিনি আরো বলেন, “রংপুরের মানুষ আমার আব্বার পাশে ছিলেন। তারা আমার পাশেও থাকবেন এবং আব্বার কবর দেখে রাখবেন। এটি রংপুরবাসীকে দায়িত্ব দিয়ে গেলাম।”

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনএ জোটের সভাপতি সেকেন্দার আলী মনি, মুখপাত্র শেখ মোস্তাফিজুর রহমান, মহাসচিব মো: জাহাঙ্গীর হোসেন, সমন্বয়কারী আখতার হোসেন, এরশাদ ট্রাষ্টের পরিচালক ও এরিক এরশাদের আইনি পরামর্শদাতা অ্যাডভোকেট কাজী রুবায়েত হোসেন, ট্রাস্টের প্রেস সচিব ও বিদিশার একান্ত সহকারী সায়েম সাকলায়েন সজীব।

Leave a Reply