Sat. Apr 17th, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

টাঙ্গাইলে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে জো’র করে নৌকায় তুলে বিয়ে নিয়ে গিয়ে গণধ’র্ষণের অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় একজনকে গ্রে’ফতারও করেছে পুলিশ। টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারে এ ঘটনা ঘটে। সেই স্কুলছাত্রীকে ধ’র্ষণের পিছনে তিন ব’খাটের জ’ড়িত থাকার অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে। এর আগে বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে নি’র্যাতিতার মা বা’দী হয়ে দেলুয়ার থানায় ব’খাটে মাসুদকে প্রধান আ’সামি করে তিনজনের বি’রুদ্ধে নারী ও শি’শু নি’র্যাতন দ’মন আইনে একটি মা’মলা দা’য়ের করেছেন।

নি’র্যাতিতাকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ওই ঘটনায় অ’ভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শা’স্তির দাবি জানিয়েছে নি’র্যাতিতা ও স্বজনরা। নি’র্যাতিতা ও তার স্বজন সূত্রে জানা গেছে, একই এলাকার ব’খাটে যুবক মাসুদ দীর্ঘদিন ধরে বির’ক্ত করে আসছিলো। সবশেষ গত শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় মেয়েটি নিজ বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে ছিলো। এ সময় মাসুদসহ মুখোশ পড়া তিন যুবক এসে তাকে জো’র করে নৌকায় তুলে নিয়ে যায়। নি’র্যাতিতা ডাক চি’ৎকার করার চেষ্টা করলে ব’খাটে যুবকরা তার মুখ চে’পে ধরে। পরে সিংহরাগী বিলে নিয়ে নৌকায় গণধ’র্ষণ করে অ’ভিযুক্তরা।

পাশাপাশি কাউকে কিছু জানালে প্রা’ণে মে’রে ফেলার হু’মকি দেয়। পরে মেয়েটি অ’সুস্থ হয়ে পড়লে প্রথমে উপজে’লা স্বা’স্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে টাঙ্গাইল ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় আগামীকাল বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) একটি মেডিকেল টিম গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন টাঙ্গাইল ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক মো. নজরুল ইসলাম। অ্যাডিশনাল এসপি টাঙ্গাইল সদর ও দেলদুয়ার সার্কেল রেজাউর রহমান বলেন, গণধ’র্ষণের ঘটনায় একজনকে গ্রে’ফতার করা হয়েছে। অপর আ’সামিদের গ্রে’ফতারের অ’ভিযান অব্যাহত রয়েছে

Leave a Reply