Tue. Apr 13th, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

রাজশাহীর দুর্গাপুরে এক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে (১৫) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার পাঁচুবাড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

ঘটনার পর ভিকটিম কিশোরীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে  রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠিয়েছেন।

জানা গেছে, উপজেলার পাঁচুবাড়ি গ্রামের এক ব্যক্তি (৪০) প্রতিবেশী শারীরিক প্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে ফুসলিয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় বাড়ির পাশেই জংগলের মধ্যে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করন।

ভিকটিম কিশোরী ওই ব্যক্তির সম্পর্কে ভাতিজি। ঘটনার সময় আশেপাশের লোকজন টের পেয়ে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি ধরে উত্তমমধ্যম দেয়।

অপরদিকে ভিকটিম কিশোরীকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক ভিকটিম কিশোরীকে রামেক হাসপাতালের ওসিসিতে স্থানান্তর করেন।

শুক্রবার রাত ১১টার দিকে রামেক হাসপাতালের ওসিসিতে ভিকটিম কিশোরীকে ভর্তি করা হয়েছে।

ভিকটিম কিশোরীর ভ্যানচালক বাবা অভিযোগ করে বলেন, লম্পট ওই ব্যক্তি এর আগেও ৩-৪ দিন তার প্রতিবন্ধী মেয়েকে ফুসলিয়ে ধর্ষণ করেছে। প্রমাণ না থাকায় ভয়ে এতোদিন তারা মুখ খুলেননি।

কিন্তু শুক্রবার সন্ধ্যায় স্থানীয় লোকজন লম্পটকে হাতেনাতে ধরে ফেলেছে।

দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খুরশীদা বানু কণা জানান, ঘটনাটি তিনি প্রাথমিকভাবে মোবাইল ফোনে শুনেছেন। তবে রাতে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত কেউ থানায় লিখিত অভিযোগ বা মামলা করেননি। লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান ওসি কণা।

Leave a Reply