Sun. Apr 18th, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

জুয়েল ইসলাম শান্ত,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় এক ছাত্রকে বলৎকারের চেষ্টার অভিযোগে কওমি মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার সকালে ওই ছাত্রের বাবা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করে বলে জানান ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম।

গ্রেপ্তারকৃত হাফেজ মাওলানা আশরাফুল ইসলাম (২৫) দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার রাবিজপুর গ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে। সে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সালন্দর ইউনিয়নের দারুল কুরআন কওমী মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক।

মামলার বিবরণে জানা যায়, গত শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে সালন্দর ইউনিয়নের আরাজি সিংপাড়া গ্রামে অবস্থিত মাদ্রাসা প্রাঙ্গনের বায়তুন নুর জামে মসজিদের গোসল খানায় গোসল করছিল ৯ বছরের ওই ছাত্র। এসময় মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম ওই গোসল খানায় প্রবেশ করে এবং ওই ছাত্রকে বলৎকারের চেষ্টা করে। এসময় ছাত্রটি কান্না করলে তাকে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম অফিস কক্ষে চলে যায়। পরে বাড়িতে ফিরে বিষয়টি ওই ছাত্রটি তার খালাকে জানায়। পরে বিষয়টি ছাত্রের বাবা মাদ্রাসা কমিটিকে অবগত করেন। পরে মাদ্রাসা কমিটি ওই শিক্ষক আশরাফুল ইসলামকে অফিস কক্ষে ডেকে এনে বিষয়টি শুনেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে প্রধান শিক্ষক আশরাফুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ওসি তানভিরুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।এদিকে সোমবার দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক আরিফুল ইসলামের কাছে ২২ ধারায় ছাত্রটি জবানবন্দি দিয়েছেন। পরে আদালত গ্রেপ্তারকৃত শিক্ষক আশরাফুল ইসলামকে ঠাকুরগাঁও জেলা কারাগারে প্রেরণ করেন।

Leave a Reply