Sat. Apr 17th, 2021
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ভারতে কালীপূজা উদ্বোধন করতে যাওয়ায় ফেসবুকে কুিয়ে হত্যার হুমকির কয়েক ঘন্টার মধ্যে এ বিষয়ে নিজের অবস্থান তুলে ধরেছেন ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। ইউটিউবে এক ভিডিওবার্তায় সাকিব জানিয়েছেন, ভারতে পূজা উদ্বোধনে তিনি জাননি।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে সোমবার সাকিব একটি ভিডিওতে এ প্রসঙ্গে জানান, তিনি পূজার উদ্বোধন করতে যাননি। বরং গিয়েছিলেন পূজার পাশে অন্য একটি অনুষ্ঠানে। তিনি বলেন, তিনি পূজার প্রদীপ প্রজ্জ্বালনে অংশ নিলেও পূজার উদ্বোধন করেননি।

সাকিব বলেন, ‘পূজার বিষয়টা হল গণমাধ্যম, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসেছে যে আমি পূজা উদ্বোধন করতে গিয়েছি। কিন্তু আমি যাইওনি এবং করিওনি। এটার প্রমাণ আপনারা পাবেন। সেখানে অনেক সাংবাদিক ছিল যাদেরকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। কিংবা আপনারা যদি আমন্ত্রণপত্র দেখেন সেখানে লেখা আছে যে কে উদ্বোধন করেছে।’

সাকিব বলেন, এটা উদ্বোধন হয়েছে আমি যাওয়ার আগে। যে জায়গাতে আমাদের অনুষ্ঠানটি হয়েছে সেটি অবশ্যই পূজামণ্ডপ ছিল না। পাশে আরেকটি স্টেজ ছিল সেখানেই করা হয়েছে। আর পুরো অনুষ্ঠানটা সেখানেই হয়েছে। আমি ৪০-৪৫ মিনিট সেখানেই ছিলাম। এবং এখানে কোন ধর্ম, বর্ণ কোন কিছু নিয়ে কথা হয়নি’, বলেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার।

সাকিব যোগ করেন, ‘অনুষ্ঠান শেষে যখন আমি গাড়িতে উঠব তখন অনেকগুলো রাস্তা বন্ধ ছিল কারণ পাশেই পূজামণ্ডপ ছিল। স্বাভাবিকভাবে পূজামণ্ডপটি ক্রস করে আমাকে যেতে হতো। আমি গিয়েছি, যাওয়ার সময় পরশ দা যিনি আমাকে আমন্ত্রণ করেছেন তার অনুরোধে আমি প্রদীপ প্রজ্জ্বালন করি।’

সাকিব সবাইকে অনুরোধ করেন ঘটনাটিকে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখতে। যোগ করেন, ভবিষ্যতে চেষ্টা করবেন এরকম ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে।

বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় তারকা লেখেন, ‘দুই মিনিট আমি পূজামণ্ডপে ছিলাম। ওইটা নিয়ে সবাই বলেছে। অনেকের ধারণা, আমি পূজা উদ্বোধন করতে গিয়েছি। যেটা আমি কখনোই করিনি এবং একজন সচেতন মুসলমান হিসেবে এটা আমি কখনোই করব না।’

এক দিনের সফরে গত ১২ নভেম্বর যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতে যান সাকিব আল হাসান। সেখানে এক ভক্তের মোবাইল ফোন তিনি আছড়ে ভেঙে ফেলেন বলে অভিযোগ আছে।

ভারত যাওয়ার দিক সেদিন আরেক বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন সাকিব। বেনাপোল স্থলবন্দরে এক ভক্ত ছবি তুলতে গেলে সাকিব সেই ভক্তের ফোন ভেঙে ফেলেন, এমনটিই ছিল অভিযোগ।

এই বিষয়টি নিয়েও কথা বলেন সাকিব। জানান, করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে সেই ভক্তটি যখন ছবি তুলতে আসেন তখন সাকিব সেই ভক্তের হাত সরিয়ে দেন এবং তখন ফোনটি পড়ে যায়। সাকিব সেই ভক্তের কাছে ফোন ভাঙার জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেন এবং তাকে বর্তমান পরিস্থিতির বিচারে সাবধান থাকতে বলেন।

গত বৃহস্পতিবার ভারতের কলকাতার কাঁকুড়গাছি সম্মিলিত সর্বজনীন শ্যামাপূজোর একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। সেখান থেকেই সামাজিক মাধ্যমে শুরু হয়েছে তোলপাড়। সাকিব পূজা উদ্বোধন করেছেন বলে তাকে কুপিয়ে হত্যা করার হুমকি দিয়েছেন মহসিন তালুকদার নামে সিলেটের এক যুবক। ফেসবুক লাইভে এক ভিডিওতে রোববার রাতে এ হুমকি দেন তিনি।

Leave a Reply