নন্দীগ্রামের ফলাফল ঘোষণা স্থগিত, ফের ভোট গণনা হতে পারে|দেশবানী

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

দেশবানী অনলাইন ডেস্ক: ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রাম আসনে কে জিতেছেন তা নিয়ে বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে। এই আসনে লড়ছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যাওয়া শুভেন্দু অধিকারী।”


নন্দীগ্রামে ভোট গণনা নিয়ে বিভ্রান্তি দেখা দেয়ার পর ফলাফল ঘোষণা স্থগিত করা হয়েছে। সেখানে নতুন করে ভোট গণনা হতে পারে। রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী কর্মকর্তা আরিজ আফতাব জানিয়েছেন,এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন রিটার্নিং অফিসার।,


নন্দীগ্রামে শেষ পর্যন্ত কে জিতবে তা নিয়ে শুরু থেকেই উত্তেজনা তৈরি হয় পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য জুড়ে।’


রোববার রাজ্যের ২৯২টি আসনে পর পর ফল প্রকাশিত হলেও, নন্দীগ্রাম ঘিরে দুপুর থেকেই বিভ্রান্তি তৈরি হয়।
ভোট গণনা শেষে এই আসনে তৃণমূল নেত্রী ও বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জয়ের খবর আসে। পরে জানা যায়, মমতা নয়, জিতেছেন বিজেপির নেতা ও এক সময়ের মমতার সহযোগী শুভেন্দু অধিকারী।’


এর আগে এনডিটিভি, টাইমস অব ইন্ডিয়া ও আনন্দবাজার পত্রিকাসহ ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো নন্দীগ্রামে মমতার জয়ের কথা জানিয়েছিল।,


পশ্চিমবঙ্গের সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়, ১৭ রাউন্ড ভোট গণনার পর তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেখানে জয়ী হয়েছেন। কিন্তু সন্ধ্যা গড়াতে মমতার জয় নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। বলা হয়, সার্ভারে সমস্যার জেরে সঠিক ভাবে কিছু জানা যাচ্ছে না। তার পরেই ১৬২২ ভোটে শুভেন্দু অধিকারীর জয়ের খবর আসে।’


এর আগে সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছিল, ১২০২ ভোটে নন্দীগ্রামে জয়ী হয়েছেন মমতা। সার্ভারের ত্রুটির জেরে দুপুরে এমনিতেই চল্লিশ মিনিট ভোট গণনা বন্ধ ছিল সেখানে। তার পর মমতার জয়ের খবর সামনে আসার পরও কোনো তথ্য প্রকাশ করতে পারেনি কমিশন। তার পরেই জানা যায়, শুভেন্দু জয়ী হয়েছেন। তবে কমিশন এখনো পর্যন্ত এ নিয়ে কোনো বিবৃতি প্রকাশ করা হয়নি।
এ নিয়ে আনন্দবাজার ডিজিটালকে ফোনে শুভেন্দু অধিকারীর বলেন, ‘১৬২২ ভোটে জিতেছি আমি।’
অন্যদিকে সাংবাদ সম্মেলনে মমতা বলেন, ‘নন্দীগ্রাম যা রায় দেব, মাথা পেতে নেব।’ এর কিছু পরে টুইট করে তৃণমূল জানায়, নন্দীগ্রামে গণনা এখনও চলছে। কোনও রকম জল্পনায় কান না দেওয়ার জন্যও অনুরোধ করা হয় ওই টুইটে।
তবে দলের জয়ের জন্য বাংলার মানুষকে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন মমতা। তিনি বলেন, ‘বাংলার জয়ের জন্য সকলকে অভিনন্দন। বাংলার জয়, মানুষের জয়। বাংলা আজ ভারতকে বাঁচিয়েছে।’ একই সঙ্গে নন্দীগ্রামের ফলাফল নিয়ে বিভ্রান্তির বিরুদ্ধে আদালতে যাবেন বলে জানিয়েছেন মমতা। তার অভিযোগ, ‘আমার কাছে অভিযোগ রয়েছে, রায় ঘোষণার পর কারচুপি হয়েছে।”

Leave a Reply