দেশ বাণী ডেস্ক দেশান্তর

চোখের সামনে কতজনই বয়স্ক ভাতার কার্ড পেল, খালি আমারই জুটলো না|দেশবানী

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

হিলি প্রিতিনিধিঃ
দিনাজপুর হাকিমপুর উপজেলা বোয়ালদাড় ইউনিয়ন, বোয়ালদাড় গ্রামের হতদরিদ্র ৭৯ বছরের বৃদ্ধা রিক্সা চালকের কপালে জোটেনি বয়স্ক ভাতার কার্ড।

সে বয়সের ভারে ন্যূব্জ,চোখেও তেমন দেখেন না,কানে শোনেন কম শাহজাহান আলী শেখ ভাগ্যে জোটেনি বয়স্ক ভাতার কার্ড।
হাকিমপুর উপজেলা বোয়ালদাড় ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ন্ডে মৃত ইয়াছিন আলী ছেলে শাহজাহান আলী শেখ বোয়ালদাড় গ্রামে বাড়ি।

সমাজসেবা অফিসের তথ্য অনুযায়ী বয়স্ক ভাতা পেতে পুরুষের জন্য ৬৫ বছর ও নারীদের জন্য ৬২ বছর হওয়ার প্রয়োজন। সে হিসাবে শাহজাহান আলী শেখের আরো ৪ বছর আগে বয়স্ক ভাতার পাওয়ার কথা ।
এলাকার রাসেল আহম্মেদ বলেন অভাবের তাড়নায় সে বৃদ্ধ বয়সে শাহজাহান আলী শেখ হিলি স্থলবন্দরে রিক্সা চালিয়ে কোন মত জীবিকা নির্বাহ করছেন। তার এই দুরবস্থা এতদিনেও কোন জন প্রতিনিধি নজরে আসেনি দরিদ্র বয়স্ক ভাতার কার্ড পাননি তিনি।

আনোয়ার হোসেন বলেন বয়স্ক বৃদ্ধা শাহজাহান আলী শেখ যে বয়সে ঘরে বসে খাবার কথা । এ বয়সে পেটের দায় রিক্সা চালাতে হচ্ছে। সে খুব কষ্টের মাঝে দিন যাপন করে। তার স্ত্রী মারা যা কারনে ছেলে আর সেই ভাবে বাবা দেখা শুনা করে না। ছেলের কষ্ট দিন আনে দিন খায়। তিন আরো জানান সংসার খুবই অভাব অনটনের মধ্যে চলছে এমন তো অবস্থায় তার বয়স্ক ভাতা সহ সকল প্রকার সরকারী সুযোগ সুবিধা প্রয়োজন।

শাহজাহান আলী শেখ বলেন বিজড়িত কন্ঠে বলেন, তার ভরণপোষণ বহনের ছেলে -মেয়ে কোন খোঁজ খবর রাখেন। ৭৯ বছর বয়সে আজ ও জোটেনি বয়স্ক, ভাতার কার্ড। এখানেই তার আক্ষেপ, বলেন,চোখের সামনে কতজনই বয়স্ক ভাতার কার্ড পেল,খালি আমারই জুটলো না। সংসারে অভাবের কারণে হিলি শহরে এ বয়সে আটো রিক্সা চালায়, বয়স্ক হওয়ার কারনে রিক্সায় যাত্রীরা উটে কম।’

হাকিমপুর উপজেলার চেয়ারম্যান কাছে বয়স্ক বৃদ্ধা শাহজাহান আলী শেখ আবেদ জানিয়ে তিনি বলেছেন,বাকিঁ জিবনে কি একটি ভাতার কার্ড আমি পাবো না।’

বোয়ালদাড় ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ন্ডের মেম্বার রনি বলেন শাহজাহান আলী শেখ অনেক গরিব অসহায় সে বয়স্ক ব্যাক্তি জানি তবে বয়স্ক কার্ড কম থাকার কারনে দিতে পারি নাই।

বোয়ালদাড় ইউপি চেয়ারম্যান মেফতাহুল জান্নাত মুঠোফোনে বলেন, শাহজাহান আলী শেখের বিষয়ে জানতাম না। শীঘ্রই তার নাম বয়স্ক ভাতার আওতায় আনা হবে।

Leave a Reply