দেশ বাণী ডেস্ক দেশান্তর

চার মাস পর সশরীরে আদালতে অং সান সু চি | Deshbani

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ডেস্ক রিপোর্ট: প্রায় চার মাস পর দেখা গেল মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থি নেত্রী অং সান সু চিকে। স্থানীয় সোমবার সু চিকে আদালতে মামলার শুনানির জন্য নেয়া হয়।

গত ১ ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত হন সু চি। এরপর থেকেই তাকে আর জনসম্মুখে দেখা যায়নি। সু চির বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের গোপন আইন ভঙ্গের অভিযোগসহ কয়েকটি অভিযোগ গঠন করেছে জান্তা।’

সু চির আইনজীবী থায়ে মং মং বলেন, সু চি সুস্থ আছেন। শুনানির আগে আইনজীবীদের সঙ্গে তিনি প্রায় আধঘণ্টা বৈঠক করেন। আইনজীবীদের সঙ্গে ওই বৈঠকে সু চি মিয়ানমারের জনগণের সুস্বাস্থ্য কামনা করেন। আইনজীবী থায়ে মং মং রয়টার্সকে বলেন, সু চি বলেছেন, তার দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি জনগণের জন্য প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। যত দিন জনগণ থাকবে, তত দিন তার দল বেঁচে থাকবে।,

গত রবিবার নির্বাচন কমিশনারের বরাত দিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়, গত নভেম্বরে নির্বাচনে কারচুপির কারণে জান্তার নিয়োগ করা নির্বাচন কমিশন সু চির দল এনএলডিকে বিলুপ্ত করে দেবে।

গত নভেম্বরে সু চির বিরুদ্ধে নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে ক্ষমতা দখল করে সেনাবাহিনী। সেনা অভ্যুত্থানের পর আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমকে দেয়া প্রথম সাক্ষাৎকারে জান্তা সরকারের প্রধান মিন অং হ্লাইং জানান, সুচি সুস্থ আছেন। দ্রুত তাকে আদালতে হাজির করা হবে বলেও জানিয়েছিলেন তিনি।’

অ্যাসিসট্যান্স অ্যাসোসিয়েশন ফর পলিটিক্যাল প্রিজনার্স বলছে, সেনা অভিযানে মিয়ানমারে ৮০০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। তবে ২০ মে এক সাক্ষাৎকারে মিন অং হ্লাইং বলেন, অভিযানে ৩০০ জন নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া ৪৭ পুলিশ নিহত হয়েছেন। মিয়ানমারে সু চির মুক্তি দাবিতে ও সেনা অভিযানের প্রতিবাদে বিক্ষোভ, সংঘর্ষ চলছে।

Leave a Reply