দেশবানী সারা বাংলা

ডিমলায় অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে আইসক্রিম তৈরির দায়ে জরিমানা

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

জাহাঙ্গীর রেজা, স্টাফ রিপোর্টার: নীলফামারীর ডিমলায় অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে নিম্নমানের উপকরণ দিয়ে আইসক্রিম তৈরীর অপরাধে ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ এর ৫৩ ধারায় ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে কারখানার মালিককে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে৷’

শনিবার (২৯-মে) বিকালে উপজেলার বালাপাড়া ইউনিয়নের দক্ষিণ সুন্দর খাতা হাকিমের মোড়ের পশ্চিম দিকে খোকশার ঘাট সেতু সংলগ্ন একটি আইসক্রিম তৈরির কারখানায় এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়৷

উক্ত আইসক্রিম তৈরির কারখানাটি একই এলাকার সুরুজ জামাল এর পুত্র শাহ্ আলমের।

ভ্রাম্যমান আদালতটি পরিচালনা করেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জয়শ্রী রানী রায়। এসময় সঙ্গে থেকে সহযোগিতা করেন, পেশকার রোকনুজ্জামান রোকন, ডিমলা থানার পুলিশের এস আই আখতারুজ্জামান সহ তার সঙ্গীয় ফোর্স।’

জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে ওই আইসক্রিম তৈরির কারখানায় অসাধু উপায় অবলম্বন করে নিম্নমানের উপকরণ দিয়ে শিশু খাদ্য আইসক্রিম তৈরি করে আসছিলো৷

ডিমলায় অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে আইসক্রিম তৈরির দায়ে জরিমানা

ভ্রাম্যমান আদালতের টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সরেজমিনে গিয়ে দেখে দুধের পরিবর্তে বাউডার দুধ, চিনির পরিবর্তে ঘণ চিনি অর্থাৎ সেকারিন, নারিকেলর পরিবর্তে সাদা ভূষি শুধু তাই নয় সাদা করতে দিচ্ছে নিম্নমানের ময়দা আর বিস্কিটের গুড়ো ও বিভিন্ন ধরনের রঙের কেমিক্যাল মিশিয়ে এসব আইসক্রিম তৈরি করছে।

ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট বলেন, এমন খাদ্য সামগ্রীর কারখানা সম্পর্ন অবৈধ আর এ ধরনের নোংরা পরিবেশে তৈরী অস্বাস্থ্যকর আইসক্রিম যদি শিশুরা খায়, তাহলে শিশুদের পেটের সমস্যা ও কিডনির মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে।

পরবর্তীতে আর যেন এভাবে নোংরা পরিবেশে অসাধু উপায়ে আইসক্রিম তৈরি করা না হয় এমন নিষেধাজ্ঞা দিয়ে কারখানার মালিককে সাবধান করেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট। সেই সাথে তিনি আরও বলেন, এ উপজেলায় কোথাও আবার যদি এধরনের অপরাধ সংঘটিত খবর পাওয়া যায় তাৎক্ষণিক সেখানে গিয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে তার বিরুদ্ধে জেল জরিমানাসহ কঠোর শাস্তি প্রয়োগ করা হবে।

Leave a Reply