বোয়ালখালীতে বলৎকারের অভিযোগে বাবুর্চি আটক

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এম মনির চৌধুরী রানা,চট্টগ্রাম:

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার ৫ নং সারোয়াতলী ইউনিয়নের পশ্চিম সারোয়াতলী ত্যৈয়বিয়া তাহেরিয়া দরবেশীয়া সুন্নিয়া এতিম খানা ও হেফজখানার ৫ শিশুকে বলৎকারের অভিযোগে হাফেজ জাকের (১৯) নামের এক বাবুর্চিকে আটক করেছে থানা পুলিশ।’

আজ মঙ্গলবার (১লা জুন) সকালে অভিযুক্ত জাকেরকে আটক করেন। আটককৃত জাকের বাঁশখালী উপজেলার পূর্ব কাথারিয়া গ্রামের নবী আহমদের ছেলে।,

ভিকটিম শিক্ষার্থীর অভিভাবক জানান, গত বছরের ১৭ জুলাই হেফজ শিক্ষার জন্য ছেলেকে মাদ্রাসায় ভর্তি করি। এবারের রমজানের বন্ধে ১২ এপ্রিল ছেলেকে বাড়ি নিয়ে যায়। গতকাল ৩১মে সোমবার ছেলে মাদ্রাসায় নিয়ে যেতে চাইলে সে কান্নাকাটি করতে থাকে ও মাদ্রাসায় যেতে অনীহা প্রকাশ করে।

এর একপর্যায়ে সে জানায় মাদ্রাসার বাবুর্চি হাফেজ জাকের তার সাথে খারাপ কাজ করে। গত ২ মার্চ রাত ১০টার সময় ও ৫ এপ্রিল রাত ২টার সময় জোর করে বলৎকার করেছে। সে ছাড়াও তার আরো ৫ সহপাঠীকে বিভিন্ন সময় বলৎকার করে আসছে।

এ ব্যাপারে ওই শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বললে তারা বিষয়টি স্বীকার করে। তাদের অভিভাবকদের সাথে আলোচনা করে এবং মাদ্রাসার পরিচালকে জানিয়ে জাকেরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন বলে জানান তিনি।

বোয়ালখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবদুল করিম বলেন,মাদ্রাসা শিক্ষার্থীর এক অভিভাবক থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করলে অভিযুক্ত জাকেরকে আটক করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। প্রকৃত ঘটনার তদন্ত চলছে

Leave a Reply