ঢাকাগামী লঞ্চের কেবিনে তরুণীকে দফায় দফায় ধর্ষণ | Deshbani

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ডেস্ক রিপোর্ট: বরিশালে বিয়ে ও চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ঢাকা’গামী একটি লঞ্চের কেবিনে নিয়ে এক তরুণী’কে দফায় দফায় ধর্ষণ করা হয়েছে। শনিবার (২৯ মে) রাতে হিজলা-ভাসান’চর-ঢাকা রুটের এমভি রাজহংস-১০ লঞ্চে এ ঘটনা ঘটে।’

বুধবার (০২ জুন) দুপুরে ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী থানা পুলিশের দারস্থ হয়ে অভি’যোগ করেছেন।

অভিযুক্ত মাইদুল ইসলাম মাসুম মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার মাধরায় গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে। তার সঙ্গে ধর্ষণের শিকার তরুণীর পূর্ব পরিচয় ছিল। বিয়ের প্রলোভন ও ঢাকায় নিয়ে চাকরি দেয়ার প্র’লোভন দেখিয়ে তাকে লঞ্চের কেবিনে নিয়ে ধর্ষণ করে মাসুম।,

ধর্ষণের শিকার তরুণী জানান, তিনি এমভি রাজহংস-১০ লঞ্চের ডেকে আলাদা বিছানা পেতে যাচ্ছিলেন। লঞ্চ ছাড়ার পর গভীর রাতে মাসুম তাকে বিছানাসহ কেবিনে নিয়ে যায়।’

এক পর্যায়ে মাসুম তাকে বিয়ে করা ও নির্মাণাধীন ভবন লিখে দেয়ার প্রস্তাব দেন। এতে ওই তরুণী সম্মত না হলে মাসুম সেই রাতে লঞ্চের কে’বিনে আটকে তাকে কয়েক দফা ধর্ষণ করে। রোববার (৩০ মে) সকালে ভুক্ত’ভোগীকে রাজধানীর সদরঘাটে একা রেখে মাসুম পালিয়ে যায়।

ভুক্তভোগী আরো জানান, সদরঘাট থেকে ফিরে সোমবার (৩১ মে) মাইদুলের বাসায় গিয়ে তার বাবা খলিল হাওলাদারকে বিষয়টি জনালে তিনি ১০ হাজার টাকা দিয়ে ধর্ষণের ঘটনা ধামা’চাপা দিতে চান। এরপর কাজির’হাট থানায় যান ধর্ষণের শিকার তরুণী।’

কাজিরহাট থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেন জানান, এক তরুণী থানায় গিয়েছিলেন। ঘটনাস্থল হিজলা থানার আওতায় হওয়ায় তাকে সংশ্লিষ্ট থানায় অভিযোগ করতে বলা হয়েছে।

হিজলা থানার ওসি অসিম কুমার সিকদার জা’নান, ঘটনাটি শনিবার রাতের। বুধবার দুপুরে ওই তরুণী থানায় গিয়ে মৌখিক অভিযোগ করেছেন। তিনি লিখিত অভিযোগ করলে মামলা হিসেবে নেয়া হবে।-দেশবানী

Leave a Reply