জাতীয় দেশ বাণী ডেস্ক

বাংলাদেশের ৫০ বছরে বাজেটের আকার বেড়েছে ৭৬৮ গুণ | Deshbani

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ডেস্ক রিপোর্ট : দেশের সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের বছরে বাজেট বাড়ানোর কৃতিত্ব নিলেও বাস্তবায়ন সক্ষমতা বাড়াতে পারেনি সরকার। বাংলা’দেশের ৫০ বছরে, বাজেটের আকার বেড়েছে ৭৬৮ গুণ। দেশের সুর্বণজয়ন্তীতে এসে বাজেটের আকার বাড়ানো’র কৃতিত্ব নিলেও বাস্ত’বায়ন সক্ষমতা বাড়াতে পারেনি সরকার বরং উল্টো কমেছে। প্রতি’বছরই গড়ে ফেরৎ যাচ্ছে ২০ শতাংশ অর্থ।,


১১ জন অর্থমন্ত্রী আর ২ উপ’দেষ্টার দেয়া ৫০টি বাজেটের মধ্যে সবচেয়ে বেশি’বার সুযোগ পেয়েছিলেন সাইফুর রহমান ও আবুল মাল আব্দুল মুহিত। দুজনেই ১২টি করে বাজেট উপস্থাপন করেছেন।’


সদ্য স্বাধীন, যুদ্ধ বিধ্বস্ত বাংলাদেশের প্রথম বাজেট উপস্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমেদ। ১৯৭২ সালের ৩০ জুন। ৭৮৬ কোটি টাকার এই বাজেট ছিলো বিদেশি অনুদান ও ঋণ নির্ভর। একই দিন তিনি ১৯৭১-৭২ ও ১৯৭২-৭৩ সালের বাজেট ঘোষণা করে’ছিলেন।
সামরিক শাসক জিয়াউর রহমান উপস্থাপন করেছেন ৩টি বাজেট। ১৯৭৬-৭৭ অর্থ’বছরে তার বাজেটের আকার ছিলো ১ হাজার ৯৮৯ কোটি টাকা।’


বাংলাদেশের বাজেটের ইতিহাসে বিএনপির অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান ৩ মেয়াদে দিয়েছেন এক ডজন বাজেট। ১৯৮০-৮১ অর্থবছরে সাইফুর রহমানের প্রথম বাজেট ৪ হাজার ১০৮ কোটি টাকার। ২০০৬-০৭ অর্থবছরে তার হাত ধরেই খরচের পরিকল্পনা দাঁড়ায় ৬৯ হাজার ৭৪০ কোটি টাকায়।


তৃতীয় সর্বোচ্চ সংখ্যক বাজেট দিয়েছেন শাহ এ এম এস কিবরিয়া। ১৯৯৬-৯৭ থেকে ২০০১-০২ অর্থবছর পর্যন্ত টানা ৬ বছর সরকারি আয় ব্যয় পরিকল্পনা উপস্থাপন করেছেন তিনি।


বাজেট ঘোষণা করে রেকর্ড আছে আবুল মাল আবদুল মুহিতেরও। এরশাদ সরকারের হয়ে ২টি বাজেট দেয়া মুহিত আওয়ামী লীগ সরকারে এসে দেন টানা ১০ বাজেট। এরপর মুহিতের ব্রিফ’কেস থেকেই একের পর এক বের হয়েছে রেকর্ড বাজেট। ২০১৩-১৪ অর্থবছরে প্রথমবারের মত ২ লাখ কোটির অংক ছাড়ায় বাংলাদেশের বাজেট। ২০১৮-১৯ অর্থ’বছরে তা দাঁড়ায় ৪ লাখ ৬৩ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকা।,


ক্রমাগত  বাজেট বড় করার ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছেন আ হ ম মুস্তফা কামালও। করোনা মহামারিতে নাকাল অর্থনীতি সামাল দিতে। এবারের বাজেট ৬ লাখ ৩ হাজার ৬শ’ ৮১ কোটি টাকার। বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রী পেশ করতে যাচ্ছেন নিজের ধারা’বাহিক তৃতীয় বাজেট। তবে, বড় বাজেটের বরাদ্দের সবটা খরচ করতে পারেনা মন্ত্রণালয়গুলো।,


২০১৯-২০ অর্থবছরে ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেট থেকে খরচ হয়নি ১ লাখ ৭ হাজার ৬৬৭ কোটি টাকা। গেল ১০ বছর ধরেই খরচ করার এই হার নিম্নমুখী।

Leave a Reply