দিনাজপুরে বিয়ে করলেন রেলমন্ত্রী, পাত্রী আইনজীবী | Deshbani

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

দেশবানী অনলাইন ডেস্ক ।। “দিনাজপুরে বিয়ে করলেন রেলমন্ত্রী, পাত্রী আইনজীবী।” রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন (৬৫) ইসলামী শরিয়াহ ও সরকারি আইন অনুসরণ করে শাম্মী আকতার মনিকে (৪২) বিয়ে করেছেন। শাম্মী আকতারের বাড়ি দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার নতুন বাজার এলাকার মৃত আব্দুর রহিমের মেয়ে। তারা দুই ভাই এক বোন। শনিবার (৫ জুন) বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে তাদের।

দিনাজপুরে বিয়ে করলেন
দিনাজপুরে বিয়ে করলেন রেলমন্ত্রী, পাত্রী আইনজীবী

শুক্রবার (১১ জুন) সকালে বিয়ের বিষয়টি গণমাধ্যমের কাছে শাম্মী আকতার মনির বড় ভাই মো. জাহিদুল ইসলাম মিলন হোসেন নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১০ জুন) রেলমন্ত্রী বিয়ে করবেন- এমনই খবর গণমাধ্যমে প্রচার হতে থাকে। আর এ বিষয়টি রেলমন্ত্রী নিজেই নিশ্চিত করেন বিভিন্ন গণমাধ্যমে। বিয়ের সংবাদটি প্রকাশ হওয়ার পরদিন শুক্রবার খবর এলো শনিবার (৫ জুন) বিয়ে করেছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে (পিডিবি) লাইনম্যান পদে চাকরির সুবাদে ক’বছর আগে বিরামপুর আসেন আব্দুর রহিম। সেখানেই থেকে যান তারা। এরপর বিরামপুরের নতুন বাজার এলাকায় জমি কিনে ঘর-বাড়ি করে স্থায়ী হন।

শাম্মী আকতার মনির বড় ভাই মো. জাহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন, বোন শাম্মী ঢাকার উত্তরায় থাকেন। সে আইন বিষয়ে লেখাপড়া শেষ করে হাইকোর্টে এক সিনিয়রের সঙ্গে প্র্যাকটিস করছেন। ২০ দিন আগে আইনি বিষয়ে পরামর্শ নেয়ার জন্য রেলমন্ত্রীর কাছে যান আমার বোন। সেখানে আমার বোনকে পছন্দ হয় মন্ত্রীর। ৫ জুন পারিবারিকভাবে আমার বোনের উত্তরার বাসায় বিয়ে সম্পন্ন হয় তাদের। এসময় বরপক্ষে উপস্থিত ছিলেন বিরামপুরের বিচারপতি ইজারুল হক ও তার স্ত্রী এবং কনে পক্ষে আমি ও আমার ভাই।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে নূরুল ইসলাম সুজনের স্ত্রী নিলুফার জাহান মারা যান। তাদের এক ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে। তারা তিনজনই বিবাহিত। ১৯৫৬ সালের ৫ জানুয়ারি পঞ্চগড়ে জন্মগ্রহণ করেন রেলমন্ত্রী। পঞ্চগড়-২ (বোদা-দেবীগঞ্জ) আসন থেকে নবম, দশম এবং একাদশ জাতীয় সংসদের সদস্য নির্বাচিত হন তিনি। ২০১৮ সালে নির্বাচিত হওয়ার পর রেলমন্ত্রী হন নূরুল ইসলাম সুজন।

Leave a Reply