দেশ বাণী ডেস্ক সারা বাংলা

বর্ষায় পাড়া-গ্রামের রাস্তার অবস্থা | Deshbani news

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পাঁচবিবি (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি।। বর্ষায় পাড়া-গ্রামের রাস্তার অবস্থা।
সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমুলক কাজের মধ্যে কাঁচারাস্তা পাকা করণ করলেও অনেক পাড়া-গ্রামের রাস্তা এখনো কাচায় আছে। আর এসব কাচারাস্তায় বর্ষা মৌসমে অতিরিক্ত কাদার সৃষ্টি হয়।’

গ্রামের লোকজন, গরু-ছাগল ও ভ্যান-সাইকেল চলাচল করে কাদার পরিমান আরো দ্বিগুন আকার ধারন করে। আর এসব কাদার মধ্যদিয়ে চলাচল করতে পাড়া-গ্রামের জনসাধারনদের কষ্ট করতে হয়।’

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার কুসুম্বা ইউনিয়নের শেষ প্রান্তে অবস্থিত কাশিয়া চাপড় গ্রামের রাস্তার এমন বেহাল দশা দেখাযায়। গ্রামটির অর্ধেক রাস্তায় ইট বিছানো থাকলেও বাঁকি প্রায় ৩’শ মিটার রাস্তা কাচা আছে। গ্রামটির অর্ধেক রাস্তায় ইট বিচানো থাকলেও মাঠের ফসল ও গরু-ছাগল বাড়িতে নেওয়ার সময় সবাইকে এ কাদার কষ্ট সহ্য করতেই হয়।

বর্ষায় পাড়া-গ্রামের
বর্ষায় পাড়া-গ্রামের রাস্তার অবস্থা

ওই গ্রামের আখের রস বিক্রেতা বেলাল বলেন, প্রতিদিন ২ বার আখের বোঝা ঘাড়ে করে এই কাদার রাস্তাটুকু পার হই সাবধানে। হাটে-বাজারে রস বিক্রয় করে অবশিষ্ট আখগুলো রাতের অন্ধকারে আবার এই কাদার মধ্যদিয়েই বাড়িতে নিতে হয় বলেও জানান তিঁনি। শিশু কোলে কাদার রাস্তা দিয়ে যাওয়া ওই পাড়ার গৃহবধু বলেন, আমার বাড়িতে যাওয়ার অন্য কোন রাস্তা নেই এজন্য বা”ঁচাকে নিয়ে সাবধানে যাচ্ছি।

গ্রামের মুরবি আশরাফ আলী বলেন, দেশ স্বাধীনের পর থেকেই আমরা বর্ষাকালে গ্রামবাসি এই কাদার জন্য কষ্ট করে আসছি। তিঁনি আরো বলেন, ভোটের আগে চেয়ারম্যান মেম্বার প্রার্থীরা বলে জয়ী হলে রাস্তাটি পাকা করে দিব। কিছুদিন আগে অর্ধেক পাকা হলেও বাঁকি অর্ধেক আজও কাচায় আছে।’

স্থানীয় পরিষদের ইউপি সদস্য বাবু প্রধান বলেন, ওই পাড়ার সবটুকু রাস্তায় ইট বিছানো হয়েছে। তবে মাঠে যাওয়ার জন্য বর্ষায় যতটুকু রাস্তায় কাদা হয় তা সরকারি রাস্তা নয় মালিকানা।

Leave a Reply