আলোচিত দেশ বাণী ডেস্ক

এএসপি পরিচয়ে বিয়ে, পরে জানা গেলো জামাই বাদাম বিক্রেতা | Deshbani

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

দেশবানী অনলাইন ডেস্ক ।। “এএসপি পরিচয়ে বিয়ে, পরে জানা গেলো জামাই বাদাম বিক্রেতা”। মোবাইল’ফোনে নিজেকে রংপুর রেঞ্জে কর্মরত সহ’কারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পরিচয় দিয়ে বগুড়া’র এক কলেজ ছাত্রীকে প্রেমের সম্পর্ক জড়ান পঞ্চ’গড়ের বাসিন্দা আবদুল আলীম।,

এরপর গোপনে বিয়েও করেন। কিন্তু বিয়ের এক সপ্তাহের মাথায় এসে জানা গেলো আবদুল আলীম এএসপি নয়, পেশায় সে এক’জন বাদাম বিক্রেতা।”

বগুড়া জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফয়সাল মাহমুদ জানিয়েছেন, গত ১৮ জুন আলীম বগুড়ায় ওই কলেজ ছাত্রীর বাসায় এসে তাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়।’

পুলিশে নতুন চাকরি তাই গোপনে বিয়ে করতে হবে বলে মেয়ের পরিবার’কে জানালে তার কথায় বিশ্বাস করে ওই রাতেই ঘরোয়াভাবে বিয়ের আনুষ্ঠানিক’তা শেষ করে ছাত্রীর পরিবার। এরপর শ্বশুর’বাড়িতে থাকা শুরু করে সে।

এক’পর্যায়ে মেয়েটির পরি’বারের সন্দেহ হলে তারা আলীম’কে চাকরি’র ব্যাপারে জিজ্ঞাসা’বাদ শুরু করে। জেরার মুখে সে জানায়, সে পুলিশ কর্ম’কর্তা নয়, বাদাম বিক্রেতা। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ আলীম’কে আটক করে।

এএসপি পরিচয়ে বিয়ে
এএসপি পরিচয়ে বিয়ে, পরে জানা গেলো জামাই বাদাম বিক্রেতা

বগুড়া সদর থানার পরি’দর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসা’বাদে,
আলীম জানিয়েছে এর আগে সে এভাবে প্রতারণা করে আরও ৪টি বিয়ে করেছে। তার প্রথম পক্ষের স্ত্রী’র দুটি সন্তানও রয়েছে।,

শুক্রবার (২৫ জুন) ওই কলেজ ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে এবং প্রতারণা’র অভি’যোগে থানায় মামলা করেছেন।’

ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আলীমকে
আদা’লতের মাধ্যমে বগুড়া জেলা কারা’গারে পাঠানো হয়েছে।-দেশবানী নিউজ

সূত্র- যমুনা টেলিভিশন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *