আলোচিত দেশ বাণী ডেস্ক সারা বাংলা

ডিমলায় নিজের গলা কেটে বিলকিছ বেগমের আত্মহত্যা

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নুরুজ্জামান সরকার।। “ডিমলায় নিজের গলা কেটে বিলকিছ বেগমের আত্মহত্যা”। নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার নাউতারা ইউনিয়ন এর নাউতারা গ্রামে নিজের গলা কেটে এক মহিলার আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।আত্মহত্যা কারী ওই মহিলার নাম হলো বিলকিস বেগম(৪২)।’

আজ শুক্রবার (২৫- জুন) বিকেল আনুমানিক ৫:০০ ঘটিকায় সময় নাউতারা বাজার থেকে ২০০মিটার পূর্ব পাশে বাবার বাড়িতে গলা কেটে ওই মহিলার আত্মহত্যা করেন এবং ঘটনাস্থলেই মৃত্যু বরণ করেন।

সে নাউতারা গ্রামের খোদা বকোস (৬৮) ও রশিদা বেগমের(৬৫) মেয়ে।আজ বিকেল বেলা শাক রান্না করার সময় মরিচ না থাকায় মরিচ বাগানে বিলকিছ বেগমের মা ও মেয়ে (নানি – নাতনি) মরিচ ছিঁড়তে গেলে ওই সময় নিজের গলা নিজেই কাটে। তারা মরিচ এনে দেখতে পায় গলায় রক্ত ও তিনি মাটিতে পড়ে আছেন।এই দৃশ্য দেখে চিৎকার চেঁচামেচির শুরু হয়।’

ডিমলায় নিজের গলা কেটে বিলকিছ বেগমের আত্মহত্যা

নিহত বিলকিছ বেগমের বিয়ে হয়েছে একই উপজেলার ৭নং খালিশা চাপানী ইউনিয়ন এর খালিশা চাপানী গ্রামের কালামেম্বার পাড়া এলাকায়।স্বামীর নাম হলো মোঃ জোবানুর রহমান।নিহত বিলকিছ বেগমের ২ ছেলে ও ১ কন্যা সন্তান রয়েছে।প্রথম ছেলের নাম মোঃ আব্দুর রশিদ (২২), দ্বিতীয় ছেলের নাম বিপ্লব (১৮), ও ছোট মেয়ের নাম হলো সুমি (১০)। স্বামী ও ছেলে মেয়ে উভয় ই ঢাকায় থাকেন।’

পরিবার সূত্রে জানা যায়

নিহত বিলকিছ বেগমের মানসিক রোগ ছিলো। সর্বদাই তিনি নিজের প্রাণ নেওয়ার চেষ্টা করেন এবং অনেকবার এই রকম হয়েছে। এর আগে বিলকিছ বেগম তার স্বামী ও ছেলে মেয়েদের সাথে ঢাকায় থাকতেন কিন্তু একদিন হটাৎ করে নিজের গলায় কাচি (কাটাই) দিয়ে কাটার চেষ্টা করে এবং রক্ত ও বাইর হয় তখন শশুর বাড়িতে রেখে যান তার স্বামী মোঃ জোবানুর রহমান।এক বছর হতে না হতেই মানসিক সমস্যা বাড়তে থাকে বিলকিছ বেগমের। আবোল তাবোল বলতে শুরু করে। গত বৃস্পতিবার (২৪- জুন) নিজেই নিজের গলা চেপে ধরেছিলো।

এলাকাবাসীর সূত্র থেকে জানা যায়, চিৎকার-চেঁচামেচি শোনার পর সবাই ঘটনা স্থলে ছুটে যায় এবং মাটিতে গলাকাটা অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। এর পর ডিমলা থানার পুলিশ কে অবগত করে এবং এবং তাৎক্ষণিক পুলিশ ঘটনাস্থলে চলে আসেন।

থানা সূত্রে জানা গেছে, ডিমলা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত করে এবং নিহত বিলকিছ বেগম কে পোস্টমর্টেম করার জন্য ভ্যান গাড়িতে করে নিয়ে যান।

উল্লেখ্য যে, এই ঘটনা ঘটার পর এলাকা জুড়ে এক আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *