দেশ বাণী ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক

বিয়ের তিন মাস পরেই মা হলেন দিয়া মির্জা | Db News

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

দেশবানী অনলাইন ডেস্ক।। “বিয়ের তিন মাস পরেই মা হলেন দিয়া মির্জা।” বলিউডের সুন্দরী অভিনেত্রী দিয়া মির্জা। গত ফেব্রুয়ারি’তে বৈভব রেখিকে বিয়ে করেন এই অভি’নেত্রী। বিয়ের দুই মাসের মধ্যেই অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর দেন তিনি। এবার দিলেন মা হওয়ার খবর।’


সম্প্রতি পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন দিয়া। স্বামী বৈভব রেখি ও দিয়ার এটা প্রথম সন্তান। ইতো’মধ্যে ছেলের নামও রেখেছেন তিনি। ছেলের নাম অভ্যান আজাদ রেখি।

তবে একমাস হয়ে গেলেও ছেলে হওয়ার এই সু-সংবাদটি গোপন রাখেন দিয়া। মে মাসের ১৪ তারিখ দিয়ার জীবনে আসে এই ছোট সদস্য।’


দিয়া তার সন্তান হওয়ার বিষয়টি সবাইকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জানান। নিজের ইনস্টা’গ্রাম আইডি’তে দিয়া একটি ছবি শেয়ার করেন। যেখানে তাকে দেখা যায় ছেলের আঙুল ধরে আছেন তিনি।,

বিয়ের তিন মাস

ছবিটি শেয়ার করে দিয়া লেখেন, এই ছোট মানুষ’টাকে যখন দেখি বিস্ময়ে ভরে যায় মন। ওর থেকেই শিখি এই বিশাল দুনিয়ার নিয়মকে ভরসা করা, অভি’ভাবক হওয়ার অনুভূতি’কে কুর্নিশ জানাই।  ও আমাদের প্রতি মুহূর্তে বিনয়ী হওয়াও শেখাচ্ছে।

এরপর তিনি আরও লেখেন, ছোট আভ্যানকে কোলে নেয়ার জন্য অধীর অপেক্ষা’য় রয়েছেন ওর দাদু-দিদা এবং বড়দিদি। দ্রুত ও সবার কাছে বাড়ি ফিরবে। অনেকেই হয়তো ভাবছেন একমাস এই আনন্দের সংবাদটি  কেন প্রকাশ করিনি। বিশ্বাস করুন, পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে নিশ্চয় জানাতাম।”


সন্তান জন্মের সময় শারীরিক কমপ্লিকেশন দেখা দেয়ায় ইমার্জেন্সি সি-সেকশন করতে হয় দিয়া মির্জার। প্রি-ম্যাচিওর বেবি হওয়ায় গত এক’মাস আভ্যানকে রাখতে হয়েছিল নিওনেটাল আইসিইউতে।’

তবে দিয়ার সন্তান হওয়ার সংবাদ’টি ছড়িয়ে পড়লে কমেন্টস বক্সে অভিনন্দ ও ভালোবাসায় শিক্ত হন মা ও ছেলে।  
এর আগে নির্মাতা সাহিল সাংঘাকে বিয়ে করেছিলেন দিয়া মির্জা।

সিনেমার চিত্রনাট্য শোনাতে গিয়ে দিয়ার সঙ্গে সাহিলের ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয়। এরপর ছয় বছর প্রেম করেন তারা। ২০১৪ সালে বিয়ে করেন দিয়া ও সাহিল। কিন্তু ২০১৯ সালের আগস্টে বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন এই জুটি।’


‘রেহনা হ্যায় তেরে দিল মে’, ‘দম’, ‘সঞ্জু’, ‘থাপ্পড়’সহ বেশ কিছু জনপ্রিয় সিনেমায় অভিনয় করেছেন দিয়া। তার অভিনীত সর্বশেষ মুক্তি’প্রাপ্ত সিনেমা ‘ওয়াইল্ড ডগ’।

তেলেগু ভাষার এই সিনেমা গত এপ্রিলে মুক্তি পায়। অভিনয়ের পাশাপাশি সমাজকর্মী হিসেবেও পরিচিত দিয়া। এ ছাড়া ইউএনইপি-এর গুডউইল অ্যাম্বাসেডরও তিনি।-দেশবানী নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *