দেশ বাণী ডেস্ক সারা বাংলা

সৈয়দপুরে পেটের ব্যাথায় অতিষ্ঠ হয়ে কেরোসিন ও সোডা পানে বৃদ্ধের আত্মহত্যা

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


মোঃজাকির হোসেন নীলফামারী প্রতিনিধিঃদীর্ঘ দিন থেকে পেটের ব্যাথায় অতিষ্ঠ সত্তরোর্ধ এক বৃদ্ধ কেরোসিন ও সোডা খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন। ১৫ ঘন্টা মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে ২৭ আগস্ট শুক্রবার সকালে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই বৃদ্ধ মারা গেছেন। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের শ্বাষকান্দর এলাকায়।”


জানা যায়, শ্বাষকান্দর গ্রামের তালতলাপাড়ার মৃত তহির উদ্দিনের ছেলে হাসানুল হক (৭২) দীর্ঘ দিন যাবত পেটের ব্যাথায় ভুগছেন। অনেক চিকিৎসা করেও কোন কাজ হচ্ছেনা। মাঝে মাঝে ব্যাথার তীব্রতা বাড়লে খাওয়ার সোডা ও কেরোসিন খাইলে কিছুটা আরাম বোধ করতো।,


এমতাবস্থায় গত কয়েকদিন হলো পেটের ব্যাথার মাত্রা অনেক বেশি হয়েছে। অসহ্য যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছিল প্রতিটি মূহুর্ত। এতে জীবনের প্রতি অতিষ্ঠ হয়ে পরিবারের সকলের অজান্তেই বৃদ্ধ হাসানুল হক অতিরিক্ত মাত্রায় কাপড় ধোয়ার সোডা ও কেরোসিন খায়। এর ফলে রাসায়নিক প্রতিক্রিয়ায় এক পর্যায়ে তার নাক মুখ দিয়ে প্রবল বেগে ফেনা ও রক্ত বের হতে থাকলে পরিবারের লোকজনকে সে সোডা ও কেরোসিন খেয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টার কথা জানায়। ,


২৬ আগস্ট বৃহস্পতিবার বিকালের এ ঘটনায় তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসা চলাকালে শুক্রবার সকালে সে মারা যায়। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। (সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি)আবুল হাসনাত খান বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *