দেশ বাণী ডেস্ক সারা বাংলা

অবৈধ যান বন্ধের দাবিতে চুয়াডাঙ্গায় সংবাদ সম্মেলনে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শামসুজ্জোহা পলাশ, চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি।। অবৈধ যান বন্ধের দাবিতে চুয়াডাঙ্গায় সংবাদ সম্মেলনে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক।।
চুয়াডাঙ্গায় সড়কে অবৈধ যান বন্ধের দাবিতে আগামী ৯ সেপ্টেম্বর থেকে অভ্যন্তরীণ পাঁচটি ও খুলনা রুটে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে জেলা সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।’

এ ছাড়া দাবি না মানলে আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে চুয়াডাঙ্গার সঙ্গে সারাদেশের সড়ক যোগাযোগ বন্ধেরও ডাক দেন মালিক শ্রমিক নেতারা।,

আজ সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টায় চুয়াডাঙ্গা আলী হোসেন সুপার মার্কেটের তৃতীয় তলায় অবস্থিত জেলা বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।,

অবৈধ যান বন্ধের

সংবাদ সন্মেলনে লিখিত বক্তব্যে চুয়াডাঙ্গা জেলা সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি হাবিবুব রহমান লাভলু জানান, ২০১০ সালে মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী চুয়াডাঙ্গাসহ খুলনা বিভাগের ১০টি জেলায় মহাসড়ক ও আঞ্চলিক সড়কগুলো আলমসাধু, নছিমন, করিমন, ভটভটি চলাচল নিষিদ্ধ।

আমরা গভীরভাবে লক্ষ করছি চুয়াডাঙ্গার পাঁচটি আঞ্চলিক মহাসড়কে (চুয়াডাঙ্গা-হাসাদহ, বদরগঞ্জ-চুয়াডাঙ্গা-দরবেশপুর, চুয়াডাঙ্গা-ডম্বলপুর (আলমডাঙ্গা), চুয়াডাঙ্গা-আটকবর ভায়া দর্শনা-দামুড়হুদা ও চুয়াডাঙ্গা-আলমডাঙ্গা ভায়া আসমানখালী পথে অবৈধ যান চলাচল করছে।

তিনি বলেন, সড়ক পরিবহন খাত একটি শিল্প। গত দেড় বছরের বেশি সময় ধরে কোভিড-১৯-এর কারণে পরিবহন খাত আজ চরম লোকসানের মুখে। লকডাউন শেষে সীমিত আকারে বাস চলাচল শুরু হওয়ার পর পুরোদমে অবৈধ যানের কারণে এ খাত আজ ধ্বংসের ধারপ্রান্তে।

যে কারণে এই জেলার প্রায় ১৫০০ পরিবহন ব্যবসায়ী ও ৬ হাজার পরিবহনশ্রমিক চরম কষ্টে দিনাতিপাত করছেন। অথচ পরিবহন খাতে সরকার প্রতিবছর কোটি কোটি টাকা রাজস্ব আদায় করে থাকে। তাই এই খাত টিকে থাকার স্বার্থে সরকারের সহযোগিতা জরুরি হয়ে পড়েছে।,

তারা আরও বলেন, সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী গত ১০ বছরে চুয়াডাঙ্গায় ছয় শতাধিক মানুষ নিহত এবং আড়াই হাজারের বেশি মানুষ আহত হয়েছে এই অবৈধ যানের কারণে। উপার্জনক্ষম ব্যক্তিদের হতাহতের কারণে এসব পরিবারের সদস্যরা খেয়ে না খেয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে।,

তাই আগামী ৯ সেপ্টেম্বর থেকে আঞ্চলিক ৫টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ থাকবে। আর ১২ সেপ্টেম্বরের মধ্যে যদি দাবি আদায় না হয়, তাহলে ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে দূরপাল্লার যানও বন্ধ রাখা হবে। এতে জেলার সঙ্গে সারাদেশের অনির্দিষ্টকালের জন্য সড়ক যোগাযোগ বন্ধ করা হবে।-দেশবানী নিউজ

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি হাবিবুর রহমান লাভলু, সাধারণ স¤পাদক রিপন মন্ডল, জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ স¤পাদক এ কে এম মঈন উদ্দিন মুক্তা, জেলা বাস-মিনিবার মালিক গ্রæপের সভাপতি সালাউদ্দীন, সাধারণ স¤পাদক আবুল কালাম ও জেলা ট্রাক মালিক গ্রæপের সাধারণ স¤পাদক সাইফুল হাসান জোয়ার্দার টোকন, চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি সরদার আলামিনসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা।

এর আগে চুয়াডাঙ্গার জেলা সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ নেতারা জেলার আঞ্চলিক পাঁচটি সড়কে নছিমন, করিমন, আলমসাধু, ইজিবাইক, থ্রি-হুইলারসহ সব ধরনের অবৈধ যান চলাচল বন্ধের দাবি জানিয়ে গত ৩১ আগস্ট দুপুরে পরিষদের নেতারা জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি দেন।

জেলা প্রশাসককে অবগতির জন্য স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয় আগামী ৯ সেপ্টেম্বর বৃহ¯পতিবার সকাল ৬ টা থেকে চুয়াডাঙ্গার অভ্যন্তরীণ পাঁচটি রুট ও খুলনা পথে যাত্রীবাহী বাস চলাচল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়। ১২ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সমস্যার সুরাহা না হলে ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে ঢাকা, চট্রগ্রাম, সিলেট, বরিশাল ও খুলনাসহ সারাদেশের সঙ্গে সকল প্রকার যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হবে। # #

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *