দেশ বাণী ডেস্ক সারা বাংলা

ঝালকাঠিতে ডাকাতি ছেড়ে ভালো হওয়া যুবককে কুপিয়ে জখম

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আবু সায়েম আকন, ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠিতে ডাকাতি ছেড়ে ভালো হওয়া যুবককে কুপিয়ে জখম।। ঝালকাঠির রাজাপুরে ডাকাতি ছেড়ে দিয়ে ভালো পথে জীবনযাপন করা যুবক মো. আবুল হোসেন তালুকদার (৩৫) কে রাতের আধারে কুপিয়ে জখম করেছে দৃর্বৃত্তরা।’

রবিবার রাত ৮টার পরে রাজাপুর-কাউখালী সড়কের উপজেলার নৈকাঠি বেইলী ব্রীজের ঢালে করিমের চায়ের দোকানের পাশে এ ঘটনা ঘটে।’

আবুল উপজেলার নৈকাঠি এলাকার আনসার তালুকদারের ছেলে। খবর পেয়ে রাতেই পুলিশ ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছে। তবে সংবাদ লেখা পর্যন্ত ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।,

পুলিশ জানায়, জেল থেকে জামিনে মুক্তি পেয়ে চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারি ডাকাতি ছেড়ে ভাল পথে আসার ঘোষনা দিয়ে রাজাপুর প্রেসক্লাবে একটি সংবাদ সম্মেলন করেছিলেন আবুল।,

এরপর থেকে আবুল নিয়মিত থানায় হাজিরা দিত এবং পুলিশও তাকে নজরে রেখেছিলেন। বর্তমানে সে কৃষি কাজ করে সে সংসার চালাতেন। তার বিরুদ্ধে ডাকাতি ও অস্ত্রসহ ৬টি মামলা রয়েছে।,

আবুল হোসেনের সাথে থাকা মোটরসাইকেল চালক মহারাজ জানায়, আবুলকে মুলতান নামে এক লোক দুইটি কবুতর দেয়ার কথা বলে ফোন করে ডাকে।

আবুল মহারাজকে নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে ঘটনা স্থলে করিমের দোকানের সামনে যায় এবং আবুলকে নামিয়ে মোটরসাইকেল ঘুরিয়ে পাকিং করার সময় ঐ স্থানে থাকা লোকজনকে দৌড়ে পালাতে দেখলে মহারাজও আতংকে পালিয়ে যায়। দুর্বৃত্তরা আবুলকে দাঁড়ালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে রাস্তার পাশে ফেলে রেখে যায়।’

ঝালকাঠিতে ডাকাতি ছেড়ে

এতে প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে আবুলের এক হাত ও দুই পা। রাস্তার পাশ থেকে পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

সেখান থেকে রাতেই আবুলকে ঢাকায় পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে কে বা কারা আবুলকে কুপিয়েছে সে ব্যপারে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেনি মহারাজ।,

রাজাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক মানিক হাওলাদার জানান, আবুল হোসেনের হাত-পা এমনভাবে জখম হয়েছে যে চিকিৎসা দেয়ার কোনো উপায় নেই। স্যালাইনের জন্য ক্যানোলা করারও জায়গা নেই। তার অতিমাত্রায় রক্তক্ষরণ হয়।

রাজাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি। তার পরেও হামলার কারন জানতে তদন্ত চলছে।-দেশবানী নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *