দেশ বাণী ডেস্ক সারা বাংলা

ঝালকাঠিতে সমাজ বিরোধী কাজ করতে অস্বীকার করায় কুপিয়ে জখমের অভিযোগ

Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আবু সায়েম আকন, ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠিতে সমাজ বিরোধী কাজ করতে অস্বীকার করায় কুপিয়ে জখমের অভিযোগ।।ঝালকাঠির রাজাপুরে সমাজ বিরোধী কাজ করতে অস্বীকার করায় মো. আবুল হোসেন তালুকদার ওরফে আবুকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ পাওয়া গেছে।’

এ ঘটনায় শনিবার সকালে আবুর ছোট বোন সনিয়া বেগম বাদী হয়ে ১৭ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। সনিয়া বেগম এবং আবুল হোসেন তালুকদার সাতুরিয়া ইউনিয়নের নৈকাঠি এলাকার মো. আনসার তালুকদারের সন্তান।,

মামলা সূত্রে জানাগেছে, রাজাপুর উপজেলার সাতুরিয়া ইউনিয়নের চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা তাদের সাথে দলভূক্ত হয়ে আবুকে সন্ত্রাসী, চুরি-ডাকাতি, চাঁদাবাজিসহ মাদক ব্যবসায় জড়িত হওয়ার প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন।

তাদের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় আবুকে বিভিন্ন সময় তারা খুন জখমের হুমকি দিয়ে আসছিল। ঘটনার দিন ৫ সেপ্টেম্বর’২১ রবিবার রাত ৮টার দিকে চিংড়ি মাছ এবং কবুতর দেয়ার কথা বলে আসামিদের একজন আবুকে পাঠায় নৈকাঠি স্ট্রীল ব্রীজে সংলগ্ন মোল্লা বাড়িতে। সেখানে রাস্তায় হত্যার উদ্দেশ্যে আগে থেকেই ওত পেতে থাকা অন্য আসামিরা দেশীয় অস্ত্র চাপাতী, রামদা, চাইনিজ কুড়াল, দাও নিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে আবুর শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্মক জখম করে।

এতে প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় আবুলের এক হাত ও দুই পা। আসামিরা আবুর মৃত্যু নিশ্চিত হয়ে তাকে রাস্তার পাশে ফেলে রেখে যায়। এ সময় আবুর সাথে থাকা স্বর্নের চেইন ও নগদ টাকাও নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা।

ঝালকাঠিতে সমাজ বিরোধী

ঐ রাতে রিক্সা চালক ফারুক আবুকে রক্তাক্ত জখম অবস্থায় দেখে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল শের-ই- বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

সেখানে তার অবস্থার আরো অবনতি হলে রাতেই আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে পাঠায়। এসময় আবুর ডান পা ও ডান হাত রাখা যাবেনা বলেও ডাক্তাররা মন্তব্য করেন।’

রাজাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, আসামিদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *